সপ্তাব্যাপি আয়কর মেলা শুরু || প্রথম দিনে ১ কোটি ২৭ লাখ আদায়

আপডেট: নভেম্বর ১৫, ২০১৯, ১:০০ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


উৎসব মুখোর পরিবেশে রাজশাহীতে সপ্তাব্যাপি আয়কর মেলা শুরু হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর হেলেনাবাদ এলাকার আয়কর ভবনের সামনে বেলুন, ফেস্টুন ও পায়রা উড়িয়ে এ মেলার উদ্বোধন করা হয়। এ মেলার উদ্বোধন করেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (মুসক আইন বাস্তবায়ন ও আইটি) জামাল হোসেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী কর কমিশনার ড. খন্দকার ফেরদৌস আলম, যুগ্ম কর কমিশনার মির্জা আশিক রানা, জাফর ইমাম ও উপ-কর কমিশনার (সদর দফতর-প্রশাসন) আবু নসর মো. মাহবুবুজ্জামান, উপ-কর কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম ও মকবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।
এসময় জানানো হয়, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে রাজশাহী কর অঞ্চলে আয়কর আদায় হয়েছিল ৩২১ কোটি ৬৬ লাখ টাকা। আয়কর আদায়ের এই পরিমাণ পাঁচ বছরে দ্বিগুণেরও বেশি বেড়েছে। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ অর্থবছরে প্রায় ৭৪১ কোটি টাকা আয়কর আদায় হয়েছে। একইসময়ে বেড়েছে করদাতার সংখ্যাও। এবার রেকর্ড পরিমাণ কর আদায় হবে বলেও প্রত্যাশা করছে এই প্রতিষ্ঠানটি।
রাজশাহী কর অঞ্চল সূত্রে জানা গেছে, প্রথম দিনের মেলায় সেবা গ্রহীতা ছিলেন ৩ হাজার ৫০০ জন। মোট দাখিলকৃত আয়কর রিটার্নের সংখ্যা ১ হাজার ৪৮৮টি। এছাড়া আয়কর আদায়ের পরিমাণ ১ কোটি ২৭ লাখ ৪ হাজার ৩৮৭ টাকা। নতুন ই-টিআইএন গ্রহণ করেছেন ২৭৮ জন।
এছাড়া মেলা প্রাঙ্গণে বিভিন্ন সুবিধা দিচ্ছে রাজশাহী কর অঞ্চল। মেলায় আসা দরদাতাদের জন্য রাখা হয়েছে আয়কর রিটার্ন পূরণ পরামর্শ ডেস্ক, ফটোকপি সুবিধা, ব্যাংক বুথ সেবা ও ই-পেমেন্ট সেবাসহ ওয়ান স্টপ সার্ভিসও।
মেলা চলবে আগামী ২০ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত করদাতারা রিটার্ন জমা দিতে পারবেন। নতুন করদাতারা পাবেন ই-টিআইএন সনদ। এছাড়া আয়কর মেলায় করদাতারা তাদের রিটার্ন দাখিল ও ই-রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। কর মেলায় আগতরা আয়কর অধিক্ষেত্র জানতে পারবেন। আয় করদাতাদের রিটার্ন ফরম পূরণে সহযোগিতা করা হচ্ছে। ব্যাংক, বুথে আয়কর জমা দেয়া যাবে। মুক্তিযোদ্ধা, নারী ও প্রতিবন্ধী করদাতার জন্য রয়েছে আলাদা ব্যবস্থা।
রাজশাহী কর অঞ্চলের উপ কর কমিশনার আবু নসর মো. মাহবুবুজ্জামান বলেন, কর মেলাকে কেন্দ্র করে ব্যপক প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়েছে। প্রথম দিনে উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। সবাই আনন্দঘন পরিবেশে অংশ নিচ্ছে মেলায়। আগামি দিনে কর প্রদানকারীর সংখ্যা আরো বাড়বে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ