সমকালের প্রতিষ্ঠা বাষির্কিতে সত্যের সাথে এগিয়ে যাবার প্রত্যয়

আপডেট: জুন ১, ২০১৮, ১:১৩ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক


সমকালের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত ইফতার মাহফিল-সোনার দেশ

‘অসংকোচ প্রকাশের দুরন্ত সাহস’- স্লোগানকে সামনে রেখে এগিয়ে চলছে সমাকাল। সত্য ও ন্যায়ের পথ ধরে ১৩ বছর সকল অসততার বিরুদ্ধে যেভাবে প্রতিরোধ করে চলেছে সেই পথে আরো অনেকদুর এগিয়ে যাবার আহবান জানিয়েছেন সমাজের বিশিষ্টজনেরা। বৃহস্পতিবার সমকালের ১৪ বছরে পদার্পন উপলক্ষে রাজশাহী ব্যুরো অফিসে আয়োজিত প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আলোচনা সভা ও ইফতার আয়োজনে এ আহবান জানান তারা।
বিকেল সাড়ে পাঁচটা থেকেই সমকাল রাজশাহী ব্যুরো অফিসে আগমন ঘটতে থাকে রাজশাহীর বিভিন্ন ক্ষেত্রের বিশিষ্ট সব মানুষজনদের। ইফতারের সময় যত ঘনিয়ে আসছিলো ততই কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে উঠছিলো পুরো অফিস। সমকালের পাঠক সংগঠন সুহৃদ সমাবেশ রাজশাহী শাখা এই আয়োজন করে।
অনুষ্ঠানে রাজশাহী-১ আসনের সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, ‘সমকাল সত্যের সাথে ছিলো এবং সত্যকে ধারণ করে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তা প্রশংসনীয়। সমকালের এই অনুষ্ঠানে এত এত বিশিষ্টসব মানুষদের উপস্থিতিই প্রমাণ করে সমকাল কতটা পাঠকপ্রিয়তা অর্জন করেছে। এই ধারা অব্যাহত থাকুক- সেটাই প্রত্যাশা।’
রাজশাহী জেলা প্রশাসক এসএম আব্দুল কাদের বলেন, ‘সমকাল শুধু একটি পত্রিকাই নয়। বিভিন্ন সামাজিক কাজও করে থাকে। আর সততা ও বস্তুনিষ্ঠতার মাধ্যমে যেভাবে পাঠকের মনে যে গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে তা ধরে রাখতে হবে। সততার প্রশ্নে আপোষহীন থেকে আরো অনেকদুর এগিয়ে যাবে সমকাল, সেই আশা আমরা পাঠক হিসেবে করতেই পারি।’
রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও নারীনেত্রী শাহিন আক্তার রেনী বলেন, ‘বর্তমানে যে কয়টি গণমাধ্যমে সত্য ও ন্যায়কে ধারণ করে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে যাচ্ছে তার মধ্যে সমকাল অন্যতম। সাহসিকতার সাথে আগামী দিনের পথ অতিক্রম করে সত্যকে মানুষের কাছে তুলে ধরতে চেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলে আমি প্রত্যাশা করি।’
সমকালকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ‘দীর্ঘ ১৩ বছর পেরিয়ে সমকাল যেভাবে সামনে এগিয়ে চলছে- সেজন্য সমকালকে অভিনন্দন। পাঠক হিসেবে আমরা প্রত্যাশা করতে পারি সমকাল আগামী দিনে আরো এগিয়ে যাবে। খবরের পেছনের খবরগুলোও তুলে আনবে।’
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের লিভার রোগ বিভাগের প্রধান ডা. হারুন অর রশিদ বলেন, ‘সমাজের যা সাদা সেটাকে সাদা এবং যা কালো সেটাকে কালোই বলতে হবে। এক্ষেত্রে কোনো আপোষ করা যাবে না। এটি বলার সবচেয়ে বড় মাধ্যম হলো গণমাধ্যম। সেই দায়িত্ব পালন করছে সমকাল। তবে আরো উত্তরোত্তর সফলতা অর্জন করতে সেই দায়িত্ব পালনে আরো সচেষ্ট হতে হবে।’
রাজশাহী জেলা সুহৃদ সমাবেশের সভাপতি ডা. এফএমএ জাহিদের সভাপতিত্বে ও সমকাল রাজশাহী ব্যুরো প্রধান সৌরভ হাবিবের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, রাজশাহী কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক হবিবুর রহমান, স্থানীয় দৈনিক সোনালী সংবাদের সম্পাদক লিয়াকত আলী, সোনার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হাসান মিল্লাত, সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তাফিজুর রহমান খান আলম, যমুনা টিভির রাজশাহী ব্যুরো প্রধান শিবলী নোমান, কবি আরিফুল হক কুমার, রাজশাহী জেলা সমকাল সুহৃদের সাবেক সভাপতি আহসান কবির লিটন প্রমূখ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. সালাউদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সাবেত আলী, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুব্রত কুমার পাল, রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাজী শাহেদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রকি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মামুন অর রশিদ, সাংবাদিক আনিসুজ্জামান, আনোয়ারুল আলম ফটিক, আব্দুল করিম, সুব্রত দাস, নাজমুল হক, দুলাল আব্দুল্লাহ, সমকাল বাঘা প্রতিনিধি আব্দুল লতিফ, গোদাগাড়ী প্রতিনিধি তসলিম উদ্দিন, রাজশাহী মেডিকেলে কলেজ সুহৃদ সমাবেশের সভাপতি ডা. নাহিদ হাসান, রাবি সুহৃদ সমাবেশের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল মামুনসহ রাজশাহীতে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং সুধীমহল। সকলেই সততার সাথে আগামী দিনে সমকালের পথচলার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ