সরকারি প্রাথমিকে ‘সমন্বয় বদলি’র আদেশ জারি

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯, ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


প্রাথমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে নতুন সরকারি হওয়া শিক্ষকদের পুরনো বিদ্যালয়ে এবং পুরনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের নতুন বিদ্যালয়ে বদলির পারস্পারিক বা সমন্বয় আদেশ জারি করা হয়েছে। বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করে।
মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত আদেশে পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পার্শ্ববর্তী নতুন জাতীয়করণ হওয়া বিদ্যালয় এবং নতুন জাতীয়করণ হওয়া বিদ্যালয় থেকে পার্শ্ববর্তী পুরনো বিদ্যালয়ে বদলি করতে বলা হয়েছে। বদলি করা শিক্ষকদের তালিকা আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
আদেশে বলা হয়, প্রাথমিক শিক্ষাকে সাংবিধানিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্বপ্রথম ১৯৭৩ সালে ৩৬ হাজার ১৬৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করেন। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে সরকারি করা হয়। বর্তমানে সারাদেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মোট ৬৫ হাজার ৫৯৩টি।
টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) ৪ নং লক্ষ্য অর্জনে সরকার প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত ও একীভূত শিক্ষা নিশ্চিতকরণে সরকার এই পদক্ষেপ নেয়।
আদেশে বলা হয়, বাংলাদেশের প্রতিটি বিদ্যালয়ে মানসম্মত ও একীভূত শিক্ষা নিশ্চিত করতে পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সমন্বয় করা জরুরি। পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের মধ্যে সংমিশ্রণ ঘটালে সারাদেশে প্রতিটি বিদ্যালয়ে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। এমতাবস্থায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত শিক্ষার লক্ষ্য পূরণে পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পার্শ্ববর্তী নতুন সরকারি হওয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এবং নতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে পার্শ্ববর্তী পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলি করে বদলি করা শিক্ষকদের তালিকাসহ প্রতিবেদন আগামী ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন