সরকারি ২৬ প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজারে আনতে নতুন উদ্যোগ

আপডেট: July 24, 2017, 12:51 am

সোনার দেশ ডেস্ক


সরকারি ২৬টি প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজার আনার কথা অনেক আগেই চিন্তা করা হয়েছিল। কিন্তু তা আর খুব একটা অগ্রগতি হয়নি। এসব প্রতিষ্ঠানকে পুঁজিবাজারে আনতে নতুন করে উদ্যোগ নিচ্ছে অর্থ মন্ত্রণালয়।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, পুঁজিবাজারে বিভিন্ন সরকারি প্রতিষ্ঠানকে কিভাবে আনা যায় তা নিয়ে বৈঠক ডেকেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। আগামী ২৬ জুলাই অর্থ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।
বৈঠকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও তাদের অধীনস্থ কোম্পানির প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন। এ ছাড়া পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এবং ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) প্রতিনিধিরাও বৈঠকে অংশ নেবেন। ২০১০ সাল থেকে পুঁজিবাজারে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ২৬ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার বিক্রির বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছে। এ নিয়ে অনেকবার বৈঠক হলেও গত ৭ বছরে শেয়ার বিক্রির বিষয়ে ন্যূনতম অগ্রগতি হয়নি।
বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের তাগিদে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলো শেয়ার বিক্রি সংক্রান্ত বৈঠকে অংশ নিলেও বাস্তবে তারা এ বিষয়ে খুব একটা আগ্রহী নয়। তাদের প্রশ্রয়ে কোম্পানিগুলোও নানা বাহানায় পুঁজিবাজারের পথ এড়িয়ে চলছে। মন্ত্রণালয় ও কোম্পানি কর্তৃপক্ষের আশঙ্কা, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হলে প্রতিষ্ঠানগুলোতে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ কমে যাবে।
এদিকে ২৬ জুলাই আহুত বৈঠকটি শেষ পর্যন্ত হবে কি না তা নিয়েও সংশয় রয়েছে। কারণ, ইতোপূর্বে এ বিষয়ে বেশ কয়েকবার বৈঠক আহ্বান করেও শেষ মুহূর্তে তা অর্থমন্ত্রীর ব্যস্ততার জন্য বৈঠকগুলো বাতিল করতে হয়।
এ প্রসঙ্গে আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের যুগ্মসচিব মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ বলেন, সরকারি কোম্পানির শেয়ার অফ-লোড নিয়ে ২৬ জুলাই একটি বৈঠক হবার কথা রয়েছে। এতে আগের বৈঠকগুলোয় গৃহীত সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন ও অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা হবে।