সান্তাহারে ট্রেন লাইনচ্যুত চলাচল বিঘ্নিত

আপডেট: জুন ৪, ২০১৮, ১:৪৪ পূর্বাহ্ণ

নওগাঁ প্রতিনিধি


সান্তাহারে লাইনচ্যুত ট্রেন উদ্ধারে কাজ করছে রিলিফ ট্রেন-সোনার দেশ

বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার জংশন রেলওয়ে স্টেশনে ভুল সিগনালের কারণে মালবাহী ট্রেনের ইঞ্জিনসহ ৩টি বগি লাইনচ্যুতের ঘটনা ঘটেছে। জংশন স্টেশনের রেলওয়ে লেভেল ক্রসিংয়ের ডুয়েলগেজ লাইনে এ ঘটনা ঘটেছে। এতে ট্রেন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে।
জানা যায়, ঢাকার তেজগাঁ থেকে ছেড়ে আসা দিনাজপুরগামী এমজি/বিসি বল্কক ট্রেন গত শনিবার রাত ১২টার দিকে সান্তাহার জংশন স্টেশন ত্যাগ করার পর জংশন স্টেশনের রেলওয়ে লেভেল ক্রসিংয়ের ডুয়েলগেজ লাইনে বিকট শব্দে ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে পড়ে।

এঘটনায় রেলওয়ে পাকশী বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুনকে আহবায়ক করে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
সান্তাহার জংশনে কর্মরত জুনিয়র ট্রাফিক ইন্সপেক্টর হাবিবুর রহমান বলেন, সিগনাল কেবিন মাস্টার সঠিক ভাবে পয়েন্ট তৈরি করতে না পারায় মিটারগেজের পরিবর্তে ব্রডগেজ পয়েন্ট করায় এই ঘটনা ঘটেছে।

ঘটনার পর পার্বতীপুর থেকে রাজশাহীগামী উত্তরা এক্সপ্রেস ট্রেন প্রায় পৌনে ২ ঘন্টা বন্ধ থাকে। এছাড়া অন্য সব ট্রেন চলাচল ছিল স্বাভাবিক। ট্রেন লাইনচ্যুতির এ ঘটনার জন্য প্রকৃত দায়ীকে তা চিহ্নিত না হবার কারণে কারো বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। তবে তদন্ত কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে ব্যবস্থা গৃহীত হবে বলে জানান তিনি।
পাকশী বিভাগীয় ম্যানেজার (ডিআরএম) অসিম কুমার তালুকদার বলেন, লোকবল সঙ্কটের কারণে অবসরে যাওয়া লোকবল দিয়ে কাজ চালাতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। ফলে দায়ী হলেও আইনগত জটিলতার কারণে কোন শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেয়া যাচ্ছে না। এদিকে ঈশ্বরদী থেকে উদ্ধারকারী রিলিফ ট্রেন সকাল ৬টা থেকে দুপর ২টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ইঞ্জিনসহ লাইনচ্যুত হওয়া বগি উদ্ধার করে। পর ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ