সাপাহারে ১০ হাজার আমগাছ কেটে ফেলার ৭২ ঘন্টা অতিবাহিত || উদ্ধার হয়নি কোন ক্লু

আপডেট: নভেম্বর ১৭, ২০১৯, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ

সাপাহার প্রতিনিধি


নওগাঁর সাপাহার-পোরশায় ১২জন কৃষকের প্রায় ১০ হাজার আমগাছ কেটে ফেলার ৭২ঘন্টা অতিবাহিত হলেও এখনও কোন ক্লু-উদ্ধার কিংবা প্রশাসনিক কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বাগান মালিকরা হতাশ হয়ে পড়েছে।
গতকাল শনিবার সরেজমিনে বাগান মালিক মুক্তার হোসেন বলেন, ঘটনার ৭২ঘন্টা পার হলেও প্রশাসনিকভাবে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলো না। পরবর্তীতে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে একটি চারা গাছ রোপনের জন্যও কেউ সহযোগীতা করলনা। প্রশাসনসহ সকলেই আমাদেরকে জিজ্ঞেস করছে আপনাদের কোন শত্রু ছিল কিনা। আমরা সব সময় বলেছি এত বড় ক্ষতি সাধনের মত কোন শত্রু আমাদের নেই। আমাদের ধারণা আমাদের উন্নয়নে ইর্ষান্বিত হয়ে কেউ এধরণের ঘটনা ঘটিয়েছে।
এবিষয়ে সাপাহার উপজেলা নির্বাহী অফিসার কল্যাণ চৌধুরীর জানান, এধরনের অপরাধীদের খুঁজে বের করে উচিত শস্তির ব্যাবস্থা করতে হবে। পুলিশ ঘটনার ক্লু- উদ্ধারে জোরালো তদন্ত করে চলেছে, অল্প সময়ের মধ্যেই রহস্য উদঘাটিত হবে বলে তিনি মনে করেন।
এবিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল হাই বলেন, অপরাধীকে খুজে বের করতে তদন্ত চলছে। ইতোমধ্যেই সাপাহার ও পোরশা থানায় ক্ষতিগ্রস্তদের পক্ষ থেকে দু’টি অভিযোগ দাখিল করেছে। তবে বিষয়টি যেহেতু রাতের অন্ধকারে ঘটিয়েছে তাই বিষয়টি সুরাহা করতে একটু সময় লাগবে। বর্তমানে সাপাহার ও পোরশা উভয় থানার পক্ষথেকে তদন্ত চলছে।
উল্লেখ যে, গত ১৩ নভেম্বর রাতে একদল দুর্বৃত্ত নির্মম ভাবে সাপাহার-পোরশা উপজেলায় অবস্থিত কৃষকের ১০ হাজার আমগাছ কেটে ফেলে প্রায় কোটি টাকার ক্ষতি সাধন করে।