সালাহর কারণে মানসিক চাপে মিশর!

আপডেট: জুন ৪, ২০১৮, ১:৪৩ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


মোহাম্মদ সালাহার মতো বিশ্ব কাঁপানো খেলোয়াড়কে যদি বিশ্বকাপে না পাওয়া যায়! ভক্ত-দর্শকদের তাতে ক্ষতি কতোটা কে জানে কিন্তু মিশরের তো সীমাহীন ঝামেলা তাতে। লিভারপুলের এই সেনসেশনাল স্ট্রাইকারকে নিয়েই তো কোচ এতদিন সাজিয়ে আসছেন তাদের ২০১৮ বিশ্বকাপ কৌশল! অথচ চোটে পড়া সালাহকে নিয়ে এখন কি না দারুণ মানসিক চাপে ভুগছে মিশর দল। কোচ হেক্টর কুপার তা অস্বীকারও করেননি।
রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে গেল রোববার লিভারপুলের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল ম্যাচ ছিল। সার্জিও রামোসের সাথে একটি সংঘর্ষে সালাহ গুরুতর চোট পান। প্রথমার্ধেই মাঠ ছেড়ে চলে যেতে হয় তাকে চোখে জল নিয়ে। লিভারপুল চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। শনিবার সালাহকে ছাড়া কলম্বিয়ার সাথে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে ০-০ ড্র করেছে মিশর।
‘সালাহর অনুপস্থিতি সামলে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি আমরা। খেলোয়াড়রা নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করছে। তবে সালাহর মতো খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতি যে কোনো দলের ওপর তো নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।’ ইতালির বারগেমোতে ম্যাচের পর বলেছেন কোচ। এই ড্র মানে মিশর গত অক্টোবর থেকে টানা ম্যাচ ম্যাচ জয়হীন থাকলো।
সালাহ কি আসলে গ্রুপ ‘এ’তে তাদের প্রথম ম্যাচটি খেলতে পারবেন? ১৫ জুন উরুগুয়ের বিপক্ষে ২৫ বছরের সালাহর খেলার সম্ভাবনা কম বলেই জানাচ্ছে বিশ্ব মিডিয়া। কাঁধের ইনজুরিটা ততদিনের পুরো সেরে উঠবে কি না নিশ্চিত না। ২৫ মে কুয়েতের বিপক্ষে ম্যাচটা খেলেননি সালাহ। রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ফাইনালে খেলার প্রস্তুতি দলে ছিলেন। বুধবার ব্রাসেলসে বেলজিয়ামের সাথে বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচেও তার খেলা হবে না।
১৯৯০ সালের পর আবার মিশর বিশ্বকাপে খেলতে যাচ্ছে। সেবার প্রথম পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল। কিন্তু এবার সালাহকে নিয়ে তাদের আশা দানা বেধেছিল খুব। দলটাও বাছাইপর্ব পেরিয়েছে অসম্ভব ভালো পারফরম্যান্সে। সাতবারের আফ্রিকান চ্যাম্পিয়নরা রাশিয়ার আসরে ‘এ’ গ্রুপে। ১৯ জুন স্বাগতিক রাশিয়ার সাথে দ্বিতীয় ম্যাচ। ২৫ সৌনের ম্যাচ সৌদি আরবের সাথে। সূত্র: রয়টার্স।