সিংড়ায় অবৈধভাবে নদীতে বাঁধ দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে ৪ জেলেকে কারাদ-

আপডেট: অক্টোবর ২৭, ২০১৬, ১১:৫৭ অপরাহ্ণ

নাটোর অফিস
নাটোরের সিংড়ায় অবৈধভাবে নদীতে বাঁধ দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে ৪ জেলেকে এক মাস করে কারাদ- ও জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার গুড় নদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে র‌্যাব-৫। পরে বিকেলে তাদের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে এক মাস করে কারাদ- ও প্রত্যাককে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এসময় নদী থেকে ৬টি অবৈধ বাঁধ ও  উদ্ধারকৃত ২৫ শ’ মিটার কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।
র‌্যাব-৫ এর সিপিসি-২ কোম্পানি কমান্ডার এএসপি মিজানুর রহমান জানান, দীর্ঘ দিন ধরেই সিংড়ার নদীতে অবৈধভাবে বাঁধ তৈরি করে মাছ মেরে আসছিল এক শ্রেণির অসাধু জেলে। মৎস্য বিভাগের অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গুড় নদীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। অভিযানকালে নদী থেকে ৬টি অবৈধ বাঁধ ধ্বংস করা হয় এবং সেখান থেকে ২৫০০ মিটার কারেন্ট উদ্ধার করা হয়। পরে সেই জাল আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। এসময় ৪ জেলেকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, মোশাররফ হোসেনের ছেলে আব্দুর রহিম, সাধু প্রামানিকের ছেলে কাজেম আলী, আলাউদ্দিনের ছেলে রাজু আহমেদ ও আক্কেল প্রামানিকের ছেলে মোবারক হোসেন। তাদের সবারই বাড়ি সিংড়ার কলম এলাকায়।
আটককৃতদের বিকেলে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর আলমের আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাদের এক মাস করে কারাদ- ও প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ