বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

সিংড়া ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে বিতর্কের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন

আপডেট: December 8, 2016, 12:18 am

নাটোর অফিস


নাটোরের সিংড়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি খালিদ হাসানের পিতৃ পরিচয় নিয়ে সৃষ্ট বিতর্কের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছে ছাত্রলীগ। গতকাল বুধবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান বলেন, ছাত্রলীগের নবগঠিত কমিটির সভাপতি খালিদ হাসানের বাবা রওশন আলী সিংড়া পৌর জামায়াতের আমীর নন। আর কাউন্সিলরদের ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন খালিদ।
সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, গত ৩ ডিসেম্বর সিংড়া গোল ই আফরোজ কলেজ মাঠে জামজকমপূর্ণ ভাবে উপজেলা ছাত্রলীগের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। কাউন্সিলে ভোটারদের প্রত্যক্ষ ভোটে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন খালিদ হাসান। কিন্তু বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে ‘জামায়াত নেতার ছেলেকে ছাত্রলীগের সভাপতি’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। কিন্তু নির্বাচিত খালিদ হাসানের বাবা রওশন আলী সিংড়া পৌর জামায়াতের আমীর নন বলে দাবি করা হয়। এছাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতি খালিদ হাসানের সামাজিক ও পারিবারিক মর্যাদা ক্ষুন্ন করতেই বিশেষ স্বার্থান্বেষী মহলের ইন্ধনে এই সংবাদ পরিবেশিত হয় বলে অভিযোগ করা হয়। যেখানে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে স্বচ্ছ্ব ব্যালট বাক্সের মাধ্যমে নির্বাচন সম্পন্ন হয় সেখানে প্রকাশিত সংবাদে বলা হয়েছে তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইনের পরামর্শক্রমে নতুন কমিটি নির্বাচিত হয়েছে। এছাড়া নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি খালিদ হাসানের বাবা উপজেলা জামায়াতের সভাপতি বলে উল্লেখ করা হয়েছে, যা সঠিক নয়। তারা প্রকাশিত এ সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়।
সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, বিগত ১০ বছর ধরে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িত এবং বিগত পাঁচ বছর যাবত সে পৌর ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য হিসেবে সক্রিয়ভাবে দায়িত্ব পালন করে চলেছে খালিদ হাসান। সে ২০১৩ সালে প্রাইম বিশ্ববিদ্যালয় হতে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং হতে ¯œাতক (সম্মান) শেষ করেছে। ২৬ বছর বয়সী ও অবিবাহিত খালিদ হাসান বর্তমানে বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে সান্ধ্যকালীন ব্যাচে এমবিএ অধ্যয়নরত। যা ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র মোতাবেক কোনভাবেই পরিপন্থি নয়। প্রতিবেদনসমূহের বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগসহ আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ, সহযোগী ও ভ্রাতৃ প্রতিম সংগঠন পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদকগণকে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়।
তারা আগামী চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে ‘খালিদ হাসানের বাবা রওশন আলী পৌর জামায়াতের আমির’ এই বক্তব্যের স্বপক্ষে প্রমাণাদি উপস্থাপনের জন্য অনুরোধ জানান। প্রতিবেদকগণ সংবাদের স্বপক্ষে প্রমাণাদি উপস্থাপনে ব্যর্থ হলে সংশ্লিষ্ট সকল প্রতিবেদকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌসসহ উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ