সিরাজগঞ্জে মামার হাতে ২ ভাগনে খুন: ইউপি সদস্য আটক

আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০১৮, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি


সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মামার হাতে দুই ভাগনে খুন হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো একজন। নিহত কাউছার হোসেন (২৩) ও মিল্টন হোসেন (২৭) উপজেলার পূর্ব কোদালিয়া গ্রামের এনদাদ আলীর ছেলে। আহতদের টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ খাস পুকুরিয়া ইউপি সদস্যকে আটক করেছে।
চৌহালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বোয়ালিয়া গ্রামের বকুল হোসেনের সঙ্গে তার চাচাতো বোনের ছেলে মিল্টন হোসেনের বেশ কিছু দিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। গত শুক্রবার বিকেলে বিবাদমান জমি নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তার কয়েক মামা ও মামি লাঠিসোটা নিয়ে তাদের উপর হামলা চালালে ৩ জনই গুরুতর আহত হয়। এরপর তাদের টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে কাউছারের অবস্থার অবনতি হলে গভীর রাতে ঢাকা নেবার পথে সে মারা যায়। এর মধ্যে নিহতের বড় ভাই মিল্টনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে গতকাল দুপুরে তারও মৃত্যু হয়। এঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতদের মামি ইউপি সদস্য শিরিন সুলতানাকে আটক করেছে পুলিশ। চৌহালী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন ঘটনার সতত্যা স্বীকার করেছেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ