সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলা: তদন্ত চেয়েছেন আরব নেতারা

আপডেট: এপ্রিল ১৭, ২০১৮, ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সিরিয়ায় রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহারের বিষয়ে আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানিয়েছেন আরব নেতারা।
রোববার সৌদি আরবের দাহরান শহরে আরব লীগের এক শীর্ষ সম্মেলন থেকে দেয়া বিবৃতিতে এ দাবী জানান তারা, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।
পাশাপাশি ‘অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের জন্য’ ইরানের সমালোচনাও করেন তারা।
বিবৃতিতে আরব লীগের নেতারা বলেছেন, “সিরিয়ার জনগণের বিরুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং দায়ীদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইনের প্রয়োগ নিশ্চিত করতে এ বিষয়ে স্বাধীন আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানাচ্ছি আমরা।”
বিবৃতিতে বহুপাক্ষিক সিরিয়ার যুদ্ধের রাজনৈতিক সমাধানের ওপর গুরুত্বারোপ করা করা হয়। এতে ইরানের ওপর আরো আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহ্বান জানিয়ে সিরিয়া ও ইয়েমেন থেকে ‘ইরানের বেসামরিক বাহিনীগুলোকে’ প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হয়।
গত কয়েক দশক ধরে আঞ্চলিক আধিপত্য নিয়ে সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলছে। এই দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করে ইয়েমেন ও সিরিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশে পক্ষ দুটির মধ্যে ছায়া যুদ্ধ চলছে।
গত তিন বছর ধরে রাশিয়া ও ইরানের সামরিক সহায়তায় সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ তার প্রতি হুমকি তৈরি করা বিদ্রোহীদের গুড়িয়ে দিয়েছেন। এক্ষেত্রে ইরান সমর্থিত লেবাননের হিজবুল্লাহ গোষ্ঠী ও ইরাকের শিয়া মুসলিম বেসামরিক বাহিনীরও সমর্থনও পেয়েছেন তিনি।
অপরদিকে আসাদ বিরোধী বিদ্রোহীদের সমর্থন দিয়ে আসছে সৌদি আরব, আরব আমিরাতসহ তাদের মিত্র যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য পশ্চিমা শক্তি।
শনিবার সিরিয়ায় চালানো যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার প্রতি সমর্থন জানিয়েছে আরব লীগের সৌদি আরব ও এর মিত্র আরব দেশগুলো; অপরদিকে ইরাক ও লেবানন ক্ষেপণাস্ত্র হামলার নিন্দা জানিয়েছে।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ