সীমান্ত পার হওয়ায় গর্ভবর্তী গাভীর মৃত্যুদণ্ড!

আপডেট: জুন ৪, ২০১৮, ১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ইউরোপীয় ইউনিয়নের সীমান্ত পার হওয়ায় এক গর্ভবর্তী গাভীকে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।
বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, পেনকা নামের ওই গাভীটি তিন সপ্তাহ পরে বাচ্চা প্রসব করার কথা। সম্প্রতি গাভীটি বুলগেরিয়ার সীমান্তবর্তী গ্রাম কপিলোভস্তিতে তার পাল থেকে বের হয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) অসদস্য দেশ সার্বিয়ায় প্রবেশ করে। গরুটি পরে তার মালিক হারাম্পিয়েভের কাছে ফিরে আসে এবং সার্বিয়ার পশু চিকিৎসকরা জানায়, এটি সম্পূর্ণ সুস্থ আছে।
তবে বুলগেরিয়ার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইই’র আইন অনুযায়ী, গাভীটির শাস্তি মৃত্যুদ-।
রক্ষণশীল দলের এমপি জন ফ্ল্যাক এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করে প্রধানমন্ত্রী বয়কো বরিসভ ও ইইউ’র প্রেসিডেন্ট অ্যান্টনিও তাজানির কাছে চিঠি লিখেছেন।
তিনি বলেছেন, ‘কঠোর আইনের নামে এই অযাচিত হস্তক্ষেপ সুনিশ্চিতভাবে বন্ধ করা উচিৎ।’
চেঞ্জ ডট অর্গ পিটিশন নামে একটি গ্রুপ গাভীটির ব্যাপারে ছাড় দেয়ার জন্য ইতোমধ্যে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।
এতে বলা হয়েছে, ‘আমরা বিশ্বাস করি পেনকার ঘটনায় ইইউ কর্মকর্তারা সাধারণ লোকদের জন্য যে ছাড় দেয়া হয়, তা দেননি, আর পেনকার মালিক ইতোমধ্যে উন্মাদপ্রায়।’
তথ্যসূত্র: রাইজিংবিডি