সুনীল চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত রানা-রায়হান

আপডেট: অক্টোবর ১৪, ২০১৯, ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ভারত-বাংলাদেশ ম্যাচের আবহে একটি নাম ঘুরে ফিরে আসছে-সুনীল ছেত্রী। কারণ, তার নামের পাশে জ্বলজ্বল করছে দারুণ পরিসংখ্যান; ১১২ ম্যাচে ৭২ গোল। বাংলাদেশের অনুশীলনে তাই বাড়তি গুরুত্ব পাচ্ছে তারকা এই ফরোয়ার্ডকে দ্যুতিহীন করে রাখার কৌশল। যার ওপর দায়িত্ব পড়তে পারে পরিকল্পনা বাস্তবায়নের সেই ডিফেন্ডার রায়হান হাসান ও গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাও প্রত্যয়ী কণ্ঠে জানালেন ‘সুনীল চ্যালেঞ্জ’ নিতে প্রস্তুত তারা।
২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ও ২০২৩ সালের এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের দ্বিতীয় রাউন্ডে আগামী মঙ্গলবার মুখোমুখি হবে দুই দল। কলকাতার সল্ট লেক স্টেডিয়ামে স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি।
মাশুক মিয়া জনির চোটে দলে ফিরেছিলেন রায়হান। এশিয়ার চ্যাম্পিয়ন কাতারের বিপক্ষে ম্যাচে সুযোগটাও লুফে নেন দারুণভাবে। প্রতিপক্ষ দলের তারকা ফরোয়ার্ড আলমোয়েজ আলিকে কড়া পাহারায় রেখে কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন। জেমি ডেকে ফেলেছেন মধুর এক সমস্যায়-ভারত ম্যাচে রক্ষণে বিশ্বনাথ ঘোষ নাকি রায়হান। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত না করলেও কোচ অবশ্য জানিয়েছেন দলের মধ্যে এই লড়াইটা বেশ উপভোগ করছেন তিনি।
রায়হান নিজেও সেরা একাদশে জায়গা পাওয়া নিয়ে ভাবছেন না। ২৫ বছর বয়সী এই ডিফেন্ডারের ভাবনা অন্য দিকে। গোলরক্ষক রানার ওপর দিয়ে সুনীল ঝড় বয়ে যাওয়ার আগের ঝাপটা যে তার ওপর দিয়ে যাবে। সে ঝাপটা রুখে দিতে প্রস্তুত রায়হান। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানালেন, ভারতের কাছে হারতে চান না তিনি।
“বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ কিন্তু অন্যরকম। আমরা কখনোই ভারতের কাছে হারতে চাই না। ওদের এখান থেকে জয় বা ড্র নিয়ে ফিরতে চাই। সেরা একাদশে থাকব কিনা জানি না। এটা কোচের সিদ্ধান্ত। তিনি যদি দায়িত্ব দেন অবশ্যই জান-প্রাণ দিয়ে তা পালন করব। সুনীল ওদের নির্ভরযোগ্য ফরোয়ার্ড। তাকে আটকানোর চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত আমি। আমরা।”
গোলশুন্য ড্র ম্যাচে গুরপ্রিত সিংয়ের ওপর দিয়ে আক্রমণের ঝড় বইয়ে দিয়েছিল কাতার। ভারতের গোলরক্ষক পরীক্ষায় পাস করেছিলেন দারুণভাবে। অন্যদিকে, কাতার ম্যাচে পোস্টের নিচে কোনো পরীক্ষাই দিতে হয়নি রানাকে। অবশ্য বাংলাদেশের এই গোলরক্ষকের বিশ্বাস ভারত ম্যাচ হবে অন্যরকম। সুনীল চ্যালেঞ্জ ছাড়াও সামলাতে হবে মোহাম্মদ আশিক কুরুনিয়ান, মানবীর সিংদের আক্রমণ। রোববারের অনুশীলনের পর ৩১ বছর বয়সী এই গোলরক্ষক জানালেন সবরকম প্রস্তুতিই নিচ্ছেন তারা।
“ওদের স্ট্রাইকারদের নিয়ে অবশ্যই পরিকল্পনা আছে। সুনীলের মতো আরও অনেক ফরোয়ার্ড আছে ওদের দলে। যারা যেকোনো সময় ম্যাচ ঘুরিয়ে দিতে পারে। এগুলো নিয়ে আমাদের ডিফেন্ডার ও গোলকিপারদের মধ্যে কাজ হচ্ছে। আশা করি সেগুলো মাঠে প্রয়োগ করতে পারলে ভালো কিছু হবে।”
“আমি সুনীলের কয়েকটা ম্যাচের ভিডিও দেখেছি। দেখে আসলে বোঝার চেষ্টা করেছি, ম্যাচের মধ্যে ওর মুভমেন্ট কেমন হতে পারে, কোন অ্যাঙ্গেল থেকে শট নিতে পারে। এগুলো নিয়ে এক্সট্রা কাজ হয়েছে অনুশীলনে।” “আসলে নির্দিষ্ট দিনে যারা ভালো করবে। তারাই জিতবে। কাতারের বিপক্ষে ওদের গোলরক্ষক ভালো করেছে। এখন ভারতের বিপক্ষে আমাদের ম্যাচ। পরিস্থিতি যাই হোক, প্রতিপক্ষ দলে যে-ই থাকুক, আমাদেরও চ্যালেঞ্জ নিতে হবে।”-বিডিনিউজ