হোটেল থেকে চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেনের মরদেহ উদ্ধার

আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০১৮, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


রাজধানী ঢাকার একটি হোটেলের কক্ষ থেকে প্রখ্যাত চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।
শনিবার (১ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর পান্থপথে অবস্থিত হোটেল ওলিও ড্রিম হ্যাভনের একটি কক্ষ থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে।
তার মৃত্যুর খবরটি বাংলানিউজকে নিশ্চিত করেছেন ফোনিক্স ফটোগ্রাফিক সোসাইটির প্রেসিডেন্ট সৈয়দ সাখাওয়াত কামাল।
তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আনোয়ার হোসেন স্যারকে আমরা দেশে এনেছিলাম আমাদের ‘বাংলাদেশ ইন্টারন্যশলান স্যালন-২০১৮’র জুড়ি হিসেবে। তিনি ফ্রান্স থেকে গত ২৩ নভেম্বর ঢাকায় আসেন। এরইমধ্যে আমাদের কার্যক্রম শেষ হয়ে গিয়েছিলো। কিছু আনুষ্ঠানিকতা বাকি থাকায় আমাদের ক্লাবের কয়েকজন শনিবার সকাল ৭টার দিকে উনার সঙ্গে দেখা করতে হোটেলে যায়। তার কক্ষের বাইরে থেকে অনেক ডাকাডাকি করে সাড়া না পেয়ে আমরা পুলিশের শরণাপন্ন হই। এরপর পুলিশ এসে কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।
এ প্রসঙ্গে শেরেবাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিজি বিশ্বাস বাংলানিউজকে বলেন, খবর পেয়ে শনিবার সকাল ১১টার দিকে পান্থপথের হোটেল ওলিও ড্রিম হেভেনে যায়। হোটেলের ৮০৯ নম্বর কক্ষের দরজা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে বিছানায় আনোয়ার হোসেনের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখি। তার শরীরের কোথাও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবে মরদেহের পাশ থেকে কিছু ওষুধ উদ্ধার করা হয়েছে।
ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ এখন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে-যোগ করেন তিনি।
১৯৪৮ সালের ৬ অক্টোবর পুরান ঢাকার আগানবাব দেউড়িতে আনোয়ার হোসেনের জন্ম।
‘সূর্যদীঘল বাড়ি’ খ্যাত শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহক আনোয়ার হোসেন এখন পর্যন্ত পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। ‘এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী’,‘পুরস্কার’, ‘অন্য জীবন’ এবং ‘লালসালু’র জন্য তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।
সূত্র: বাংলানিউজ