২০৬ কোম্পানির দরপতন

আপডেট: মার্চ ২৫, ২০১৯, ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে (রোববার) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ২০৬ কোম্পানির দর কমেছে। এ সময় ডিএসই’র সার্বিক মূল্যসূচক কমেছে ৫৮.০৭ পয়েন্ট, যা বিগত তিন মাসের মধ্যে সর্বনি¤œ।
অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ১০ কোটি ৪৯ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই’র সাধারণ মূল্যসসূচক ১৩৪.৫৬ পয়েন্ট কমেছে।
ডিএসই’র বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, রোববার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৪৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। এর মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৯৪টির বা ২৭ শতাংশের, দর কমেছে ২০৬টির বা ৬০ শতাংশের এবং দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৩টির বা ১৩ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের।
দিনশেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৫৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৫১২ পয়েন্টে। অন্যদিকে শরিয়াহ সূচক ২ পয়েন্ট ও ডিএসই-৩০ সূচক ২১ পয়েন্টে কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২৮১ ও ১৯৭২ পয়েন্টে।
ডিএসইতে সূচক কমে ২ মাস ২৬ দিন বা ৫৪ কার্যদিবসের মধ্যে সবচেয়ে কমে নেমে এসেছে। এর আগে চলতি বছরের ২ জানুয়ারি ডিএসইএক্স আজকের চেয়ে কমে অবস্থান করছিল। ওইদিন ডিএসইএক্স ৫ হাজার ৪৯৬ পয়েন্টে অবস্থান করছিল।
ডিএসইতে এদিন টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৩৫৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকার। ডিএসই’র আজকের লেনদেন ৩ মাস ১ দিন বা ৫৯ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বনি¤œ।
এর আগে ২০১৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর ডিএসই’র লেনদেন কালকের চেয়েও কম হয়েছিল। ওইদিন লেনদেন হয়েছিল ৩৫৩ কোটি টাকার। ডিএসইতে টাকার পরিমাণে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে ব্র্যাক ব্যাংকের। কোম্পানিটির ২১ কোটি ৮৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ১৬ কোটি ২১ লাখ টাকার লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে ইউনাইটেড পাওয়ার এবং ১৪ কোটি ৯৩ লাখ টাকা লেনদেনে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে ডাচ-বাংলা ব্যাংক। টপটেন লেনদেন উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে, গ্রামীণফোন, ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো, সুহৃদ, মুন্নু সিরামিক, জেএমআই সিরিঞ্জ, ন্যাশনাল পলিমার এবং লিগ্যাসি ফুটওয়্যার। অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ২২০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ হাজার ৮৮৮ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৪৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৬১টির, কমেছে ১৫০টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৫টির দর। সিএসইতে আজ ১০ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।