৩০ জনকে কেটে খেয়েছে এই দম্পতি

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০১৮, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


জলজ্যান্ত নরখাদক! রাশিয়ার নাতালিয়া বাকসশিভা ও তার স্বামী দিমিত্রি সম্পর্কে এমনই মতামত দিল মেডিক্যাল টিম। ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে নরহত্যার দায়ে গ্রেপ্তার করা হয় নাতালিয়া ও দিমিত্রিকে। গ্রেপ্তারের পরেই তাদের মধ্যে কিছু অস্বাভাবিক আচরণ খেয়াল করেন তদন্তকারীরা। তখন মনোবিদদের একটি দলকে নির্দেশ দেওয়া হয় তাদের পরীক্ষা করার জন্য। পরীক্ষার শেষে ওই যুগলকে ‘মানসিক বিকারগ্রস্ত নরখাদক’ হিসেবে চিহ্নিত করলেন মনোবিদরা। তাঁরা আরও জানিয়েছেন, নাতালিয়া ও দিমিত্রি কমকরে ৩০ জন নারীকে হত্যা করে কেটে খেয়ে ফেলেছে। এবং তার জন্য এদের মধ্যে কোনও অনুতাপ বা অনুশোচনা নেই।
তিরিশটির ওপরে খুন করে ফেললেও পুলিশের সন্দেহের তালিকা থেকে কয়েক যোজন দূরে ছিল বাকসশিভা দম্পতি। এলিনা ভারুশিভা নামে এক তরুণী নিখোঁজ হওয়ার পরে তদন্ত শুরু করেছিল পুলিশ। এদিকে নাতালিয়াদের বাড়ির পিছনে একটি আবর্জনার স্তূপ থেকে এলিনার মোবাইল ফোনটি খুঁজে পান একদল নির্মাণ কর্মী। তাঁরা সেখানে একটি বাড়ি বানানোর কাজ করছিলেন। মোবাইল ফোনটি পুলিশের কাছে জমা দিলে তখন সন্দেহ গিয়ে পড়ে নাতালিয়াদের ওপরে। প্রথমে জেরা করার পরে গ্রেপ্তার করা হয় নাতালিয়া ও দিমিত্রিকে।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ