৩ বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে পারেনি ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগ

আপডেট: নভেম্বর ১৯, ২০১৯, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি


আজ মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ঈশ্বরদী উপজেলা ও পৌর যুবলীগের তিন বছর মেয়াদী কমিটির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। ৩ বছর আগে ২০১৬ সালের ১৯ নভেম্বর ব্যাপক আয়োজনে সম্মেলনের মাধ্যমে যুবলীগের এই দুই শাখার কমিটি গঠন করা হয়। উপজেলা কমিটিতে সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এমপি’র ছেলে শিরহান শরীফ তমালকে সভাপতি ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা রাজিব সরকারকে সাধারণ সম্পাদক এবং পৌর যুবলীগের কমিটিতে আলাউদ্দিন বিপ্লবকে সভাপতি ও আরিফুল ইসলাম লিটনকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করে কমিটি ঘোষণা করা হয়। ১২ বছর পর যুবলীগের সম্মেলনে গঠিত নতুন কমিটি গঠনের ৩ মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কথা থাকলেও গত ৩ বছরেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করতে পারেনি ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগ। এরই মাঝে এ বছর উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাজিব সরকার চলতি বছর ২৫ জুন মৃত্যু বরণ করলেও এই পদটিও শূন্য রয়েছে গত ৫ মাস ধরে। এই অবস্থার মধ্য দিয়ে দলীয় অভ্যন্তরীন দ্বিধা-দ্বন্দ্বসহ নানা কারণে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন ছাড়াই মেয়াদ পূর্ণ করলো উপজেলা যুবলীগ।
এসব বিষয়ে পাবনা জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মর্তূজা বিশ্বাস সনি বলেন, ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগের কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়া অন্য কোন পদের অনুমোদন নাই। সাধারণ সম্পাদক রাজিব সরকারের মৃত্যুর পর এই পদসহ অন্য কোন পদ কিংবা পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়নি। তাছাড়া ঈশ্বরদীতে যুবলীগে গ্রুপিং থাকার কারণে উপজেলা যুবলীগের কমিটিতে অন্য কোন পদের অনুমোদন দেওয়া সম্ভব হয়নি। তিনি বলেন, আমরা নেতৃত্বে এসেছি ৪ মাস হলো। জেলা যুবলীগের আগের কমিটিও ঈশ্বরদীর যুবলীগে কোন্দল ও গ্রুপিং থাকার কারণে উপজেলা যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দিতে পারেনি।