৪১ সাংবাদিককে জিম্মি করে রেখেছে হুথি বিদ্রোহীরা

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০১৭, ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


ইয়েমেনের রাজধানী সানার একটি টিভি চ্যানেলের বহু সাংবাদিককে আটক করে রেখেছে হুথি বিদ্রোহীরা। গণমাধ্যম কর্মীরা ওই সাংবাদিকদের অতি দ্রুত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন।
রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডার্সের (আরএসএফ) তথ্য অনুযায়ী, শনিবার সানায় অবস্থিত ইয়েমেনের আল ইয়োম টিভি চ্যানেলের সদর দপ্তরে গ্রেনেড হামলা চালায় হুথি বিদ্রোহীরা। তারা টিভি চ্যানেলের ভবনের ভেতরেই ৪১ জন সাংবাদিককে জিম্মি করে রেখেছে। বেশ কয়েকদিন ধরেই সেখানে বন্দী রয়েছেন ওই টিভি চ্যানেলের কর্মীরা।
হুথি বিদ্রোহীদের হামলায় তিন নিরাপত্তাকর্মী আহত হয়েছেন। আরএসএফের মধ্যপ্রাচ্য ডেস্কের প্রধান আলেকজান্দ্রা এল খাজেন বলেছেন, সাংবাদিকদের ওপর হুথিদের এ ধরনের হামলার তীব্র নিন্দা জানাই আমরা। জিম্মি করে রাখা সাংবাদিকদের দ্রুত মুক্তি দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।
মঙ্গলবার রেড ক্রসের (আইসিআরসি) তরফ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি মাসের শুরু থেকে সানায় সহিংসতা শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কমপক্ষে ২৩৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও চারশোর বেশি মানুষ।
এদিকে, সোমবার সকালের দিকে রাজধানী সানায় সাবেক প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহর গাড়িবহরে গাড়ি ও বোমা হামলা চালায় হুথিরা। তাকে গাড়ি থেকে বের করে গুলি করে হত্যা করা হয়। তিন বছর ধরে চলতে থাকা যুদ্ধের পরিণতি এখন কি হবে তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।
ইয়েমেন আল ইয়োম টিভি চ্যানেলটি সালেহর দল জেনারেল পিপলস কংগ্রেস পার্টির। আরএসএফ সূত্র জানিয়েছে, টিভি চ্যানেলটির সাংবাদিকদের আত্মসমর্পন করতে বাধ্য করা হয়েছে।
তথ্যসূত্র: জাগোনিউজ