৮ বছরের মধ্যে জনসংখ্যায় চিনকে ছাড়িয়ে যাবে ভারত

আপডেট: জুন ১৯, ২০১৯, ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


বিশ্বের জনসংখ্যা পরিস্থিতি বদলে যাচ্ছে দ্রুত। আগামী ২০ বছরের মধ্যেই উচ্চ-আয়ের দেশগুলোতে জনসংখ্যা সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছাবে। বিপরীতে, অনেক উন্নত দেশের জনসংখ্যাই কমতে শুরু করেছে।
মঙ্গলবার (১৮ জুন) জাতিসংঘ প্রকাশিত তথ্যমতে, ২১০০ সাল নাগাদ ইউরোপের জনসংখ্যা কমে যাবে প্রায় ১২ কোটি। এক ইতালিতেই লোকসংখ্যা কমবে প্রায় ২ কোটি, জার্মানিতে কমবে ৯০ লাখ। এছাড়া আলবেনিয়া, মলদোভা ও সার্বিয়ার জনসংখ্যা কমে দাঁড়াবে প্রায় অর্ধেকে।
ইউরোপের মধ্যে একমাত্র ব্যতিক্রম যুক্তরাজ্য। ২১০০ সালের মধ্যে দেশটির জনসংখ্যা বাড়বে প্রায় ১ কোটি। এছাড়া নরওয়ে, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডেও জনসংখ্যা বাড়তে পারে।
ইউরোপের বাইরের দেশগুলোতে জনসংখ্যার পরিবর্তন চোখে পড়ার মতো। ২০২৭ সাল নাগাদ বিশ্বের সর্বোচ্চ জনসংখ্যার দেশ হিসেবে চিনকে ছাড়িয়ে যাবে ভারত। ২০৬০ সালে জনসংখ্যার সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছাবে দেশটি।
২১০০ সালের মধ্যে চিনের জনসংখ্যা কমবে প্রায় ৩০ কোটি ৭৫ লাখ। বর্তমানে প্রতি পাঁচ জনের এক জন চিনা নাগরিক হলেও, ২১০০ সাল নাগাদ এটি কমে দাঁড়াবে ১০ জনে এক জনেরও কম।
সবচেয়ে জনবহুল ১০টি দেশের তালিকায় ব্রাজিল, বাংলাদেশ, রাশিয়া, মেক্সিকোর জায়গা নিয়ে নেবে ইথিওপিয়া, মিশর, কঙ্গো ও তানজানিয়া। এ তালিকায় নাইজেরিয়ার কাছে তৃতীয় স্থান হারিয়ে চারে নেমে যাবে যুক্তরাষ্ট্র।
২০৫০ সালে বিশ্বের মোট জনসংখ্যা দাঁড়াবে প্রায় ৯৭০ কোটি। আর, ২১০০ সালের মধ্যে এটি সর্বোচ্চ সীমা পার করে দাঁড়াবে ১১০০ কোটিতে।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ