অনলাইনেই পহেলা বৈশাখ উৎযাপন করবে রাবির চারুকলা অনুষদ

আপডেট: এপ্রিল ১৩, ২০২০, ১১:০৩ অপরাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক


বাঙালি জাতির প্রাণের উৎসব ‘পহেলা বৈশাখ’। নতুন এ বছরকে বরণ করে নিতে নতুন নতুন পরিকল্পনা হাতে নেন অনেকেই। কিন্তু এ বছর দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে সব ধরণের জনসমাগম নিষিদ্ধ করেছে সরকার। তাই জমজমাট আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপন করা হচ্ছে না এবারের উৎসবটি।
তবে থেমে নেই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ। বাঙালি জাতির অন্যতম এ উৎসবের ঐতিহ্য ধরে রাখতে দেশে প্রথমবারের মতো অনলাইনে আয়োজন করতে যাচ্ছে পহেলা বৈশাখ। তারা অনুষ্ঠানের নাম রেখেছেন ‘ই-বৈশাখ ১৪২৭’।
আয়োজক সূত্রে জানা যায়, দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানটি চারুকলা অনুষদের নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল ‘রেডিও চারু’ (Radio Charu) তে সরাসরি সম্প্রচারিত হবে। অনুষ্ঠানমালায় থাকছে নাচ, গান, আবৃত্তি, করোনা সচেতনতামূলক ফ্যাশন শো এবং বিশেষ আকর্ষণ হিসেবে থাকছে বাংলাদেশের নাটক ‘কমলাকান্তের জবানবন্দী’ এবং অবাক জলপান’। বিগত বছরগুলোতে চারুকলার মঞ্চে সরাসরি অনুষ্ঠিত প্রোগ্রামের কিছু ভিডিও ক্লিপ যেমন গান, নাচ, যাত্রাপালা(আনারকলি) ইত্যাদি প্রদর্শিত হবে।
এছাড়াও রাবির চারুকলা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন শিল্পকর্মের ছবি নিয়ে একটি “অনলাইন শিল্প প্রদর্শনী”ও অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। একজন সরাসরি সঞ্চালক স্কাইপি ভিডিও কলে পারফর্ম এবং শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সাক্ষাৎকার নেবেন যা সরাসরি প্রচারিত হবে।
এছাড়া ই-বৈশাখের একটি অন্যতম লক্ষ্য হচ্ছে অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে করোনাকালীন সংকটে সমাজের হতদরিদ্র, অসহায় এবং নিম্ম মধ্যবিত্ত মানুষদের মাঝে বিরাজমান খাদ্য ও স্বাস্থ্য উপকরণ সংকটে তাদের পাশে দাঁড়ানো।
জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃৎশিল্প ও ভাস্কর্য বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী সৈয়দ শাহরিয়ার ইসলাম বলেন, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের কারণে ঘরে বন্দি সবাই। বাংলাদেশেও এর প্রকোপ দিন দিন বাড়ছে। তাই সরকার সব ধরনের অনুষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা দেন। আগামীকাল পহেলা বৈশাখ। তবে কোনো অনুষ্ঠান করা যাবে না। তাই নববর্ষ নিয়ে বাঙালি জাতির যে ঐতিহ্য, সেটি রক্ষার্থে রাবি চারুকলা অনুষদ প্রথমবারের মতো ‘ই- বৈশাখ ১৪২৭’ আয়োজন করতে যাচ্ছি।
চারুকলা অনুষদের ডীন অধ্যাপক সিদ্ধার্থ শংকর তালুকদার বলেন, বাঙালি জাতির প্রাণের উৎসব হচ্ছে পহেলা বৈশাখ। তবে দেশের পরিস্থিতি বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী জনসমাগমপূর্ণ অনুষ্ঠান করতে নিষেধ করেছেন। তাই বাঙালি জাতির যে ঐতিহ্য, সেটি ধরে রাখতেই ক্ষুদ্র পরিসরে আমরা অনলাইনে এ আয়োজন করতে যাচ্ছি। অনুষ্ঠানে অনুষদের তিনটি বিভাগের সভাপতি সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখবেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ