অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে ভয়ঙ্কর কোড

আপডেট: অক্টোবর ৬, ২০১৬, ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ

06
সোনার দেশ ডেস্ক
ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে নতুন এক কম্পিউটার কোড, যা এখন পর্যন্ত ঘটা সবচেয়ে বড় ওয়েব আক্রমণগুলোর মধ্যে একটি চালাতে ব্যবহৃত হয়েছিল।
নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা এই কোড ছড়িয়ে দেওয়ায় আরও বড় আক্রমণ ঘটতে পারে। ইন্টারনেট সাইটে কোডটি দিয়ে আক্রমণ করলে সাইটটি প্রচুর ডেটায় পূর্ণ হয়ে বন্ধ হয়ে যায় বলে জানিয়েছে বিবিসি।
আক্রমণের এই টুল বাড়িতে রাখা সহজ পাসওয়ার্ড দেওয়া স্মার্ট ডিভাইস খুঁজে বের করে। নেট পর্যবেক্ষণ সংস্থাগুলো ইতোমধ্যেই ভালোভাবে সুরক্ষিত নয় এমন ডিভাইস সন্ধানে স্ক্যানের বৃদ্ধি দেখেছে।
‘মিরাই’ নামের সোর্স কোডটি এই সপ্তাহ শেষে বহুল ব্যবহৃত একটি হ্যাকার চ্যাট ফোরামে ছাড়া হয়। সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে নিরাপত্তা ব্লগার ব্রায়ান ক্রেবসকে টার্গেট করে একই সোর্স কোড দিয়ে চালানো এক আক্রমণে তার সাইটে প্রতি সেকেন্ডে ৬২০ গিগাবাইটের ডেটা পাঠায় হ্যাকাররা। এই ধরনের বড় মাপের আক্রমণ ঘটিয়ে ভোক্তাদের গ্যাজেটে বিনা অনুমতিতে প্রবেশ করা সহজ করে দেওয়ায় ক্রেবস জানান, নেটে খুব শিগগিরইএই ধরনের ঘটনা বেড়ে যাবে- কোডটি ছড়িয়ে পড়ে এই আশঙ্কারই ‘কার্যত নিশ্চয়তা’ দিচ্ছে।
এখন পর্যন্ত দেখা সবচেয়ে বেশি ডেটা ক্রেবসের সাইটে আক্রমণের সময় ব্যবহার করা হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও, একই মাসে ওভিএইচ নামের একটি ফরাসী হোস্টিং সংস্থায় আক্রমণ করা হলে এর সংখ্যা আরও বাড়ে। সাইটটিতে প্রতি সেকেন্ডে এক টেরাবাইটেরও বেশি ডেটাস্ট্রিম দেখা যায়। নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর গবেষণা থেকে জানা যায়, দুটি আক্রমণই অসুরক্ষিত ডিভাইস খুঁজতে গিয়ে এত বেশি তথ্য সৃষ্টি করেছে যে, এটা ‘ইন্টারনেট অফ থিংস’ তৈরির সমান। এগুলো ওয়েবক্যাম, থার্মোস্ট্যাটের মতো স্মার্ট ডিভাইস আর ব্যবহারকারী নেট দিয়ে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে এমন সব গ্যাজেট।

 

 

ধারণা করা হচ্ছে মিরাই আর ওভিএইচের আক্রমণে ব্যবহৃত বটনেট দুটি ১০ লাখ ২০ হাজার অসুরক্ষিত ডিভাইস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নিয়েছে। এনএসফোকাস-এর প্রধান গবেষণা গোয়েন্দা বিশ্লেষক স্টিফেন গেটস জানান, এই ধরনের বড় আইওটি বটনেটের বৃদ্ধি নেটের একটি বড় অংশ হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা বোঝাতে পারে। তিনি আরও জানান, তাদের বাড়ির নেট সংযোগ আক্রমণ তথ্য পাঠানোতে ব্যবহার করা হয়েছে জন্যে ওসব হ্যাক হওয়া গ্যাজেটগুলো তাদের ব্রাউজ করার গতিতে অনেক ধীরতা দেখতে পাবে। “এসব কিছুই আইওটি ডিভাইসে একই ফ্যাক্টরি ডিফল্ট পাসওয়ার্ড ব্যবহার করার ফলাফল,” বলেন গেটস।-বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ