অনেক ‘কেন’র উত্তর দিলেন হাথুরুসিংহে

আপডেট: জানুয়ারি ২, ২০১৭, ১২:১৯ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



নিউজিল্যান্ডের শেষ দুই ম্যাচে বাজে পারফরম্যান্সের কারণে লেগ স্পিনার তানবীর হায়দার যেন এখন জাতীয় ভিলেন! দলের সিনিয়র ব্যাটসম্যানদের বেশিরভাগের ব্যাট হাসছে না। এক মুশফিকের চোটে অদলবদল হয়ে গেছে পুরো দলের চেহারা! কিন্তু এসব না। তানবীর কেন দলে এ প্রশ্নটাই এখন বাংলাদেশ জুড়ে বেশি! ঝড় চলছে স্যোশাল মিডিয়ায়। রবিবার নেপিয়ারে কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকেও প্রশ্নটি করা হয়েছিল।  নিউজিল্যান্ড সফরে এই প্রথম মিডিয়া ব্রিফিং করলেন কোচ।
বাংলাদেশ দলের সদর অন্দরের খোঁজখবর যারা রাখেন, তারা জানেন তানবীর দলে এসেছেন কোচের পছন্দে। ঢাকায় ইংল্যান্ড দলের সঙ্গে অনুশীলন ম্যাচে তানবীর তিন উইকেট পান। তখনই তিনি কোচের বিশেষ নজরে পড়েন। এরপর নির্বাচকদের কাছে তানবীরকে চান হাথুরুসিংহে। ওয়াকিফহালরা জানেন এই কোচ নির্বাচকদের কাছে যখন যা চান তা তাকে দিতেই হয়।
গতকাল রোববার তানবীর কেন দলে একথা জিজ্ঞেস করলে কোচ জবাব দেন, ‘কারণ তার পারফরম্যান্স। দলে একজন লেগ স্পিনার কাম অলরাউন্ডার দরকার ছিল। তানবীর সিডনিতে ভালো করেছে। ভালো বল করেছে এখানেও। যা আমাদের অনেক স্পিনাররা পারে নি।’ এরপর আবার বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারেনি তানবীর।’ দলের সঙ্গে আরো অনেক খেলোয়াড় থাকতে শুভাগত হোম চৌধুরী আবার কেন দলে? কোচ আবার জবাব দেন তার পারফরম্যান্স, ‘গত বিশ্বকাপে ভালো বল করেছে শুভাগত।’ সৌম্য সরকার আবার দলে ফেরায় নির্বাচকদের ওপর তার চাপ কিনা জানতে চাইলে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘আমি নির্বাচকদের কখনও কোনও চাপ দেই না। সৌম্য এসেছে তার যোগ্যতায়। কারণ সে জানে সে কী করতে পারে।’ নাসির হোসেন দলে নেই কেন জানতে চাইলে বলেন, ‘আপনারা আবার ভাববেন না আমার কারণে নাসির দলে নেই।’ ‘গত দুইবছর ধরে তার পারফরম্যান্স কী?’ ,উল্টো তিনি প্রশ্ন রাখেন।
নিউজিল্যান্ডে বাংলাদেশের বাজে পারফরম্যান্স সম্পর্কে মিডিয়া ব্রিফিংয়ে হাথুরুসিংহে আত্মপক্ষ অবলম্বন করলেন, ‘বিদেশে নিয়মিত সিরিজ না খেলার কুফল এটা।’ সিনিয়র ব্যাটম্যানরা ভালো করছে না কেন এর উত্তরে বলেন, ‘শুধু ব্যাটিং নয় বোলিংও ভালো হচ্ছে না। নইলে এক ম্যাচে প্রতিপক্ষ ৩৪১ রান করে ফেলে কী করে।’ ক্রাইস্টচার্চ ম্যাচে কিউইদের ৩৪১ রান করে ফেলার বিষয়টি সামনে তুলে আনেন তিনি। এক মুশফিকের চোটের ঘটনা কী বাংলাদেশের বাজে পারফরমেন্সের অন্যতম কারণ? টিম বাংলাদেশের প্রধান কোচ মানলেন কথাটি। কোচ বললেন, ‘অনেকদিন মুশফিক উইকেট কিপিংয়ের পাশাপাশি ভালো রানও করেছিল। তার জায়গায় আসা নুরুল হাসান সোহানও ভালো করেছে। কিন্তু মুশফিকতো মুশফিকই। তার শূন্যস্থান কী করে পূরণ হয়? ফিজিও’র পরামর্শে তাকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে রাখা হয়নি। মুশফিকের চোট দলের জন্যে বড় একটি আঘাত।’
নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে অনেক দল শুরুতেই ভালো করতে পারে না দাবি করেন হাথুরুসিংহে, ‘কিন্তু আমাদের শুরুটা ভালো হচ্ছে। তবে সেই ভালোটা আমরা ধরে রাখতে বা টেনে নিয়ে যেতে পারছি না। এটাই হতাশাজনক। প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা শতক করছে। শনিবার তাদের দু’জনের রান হয়েছিল প্রায় একশ করে। আর আমাদের দুটি মাত্র পঞ্চাশ। এটি হতাশাজনক।’ নিউজিল্যান্ডের ফিল্ডিংয়ের ভূয়সী প্রশংসা করেন কোচ, ‘তারা তাদের পরিকল্পনা অনুসারে সবকিছু করছে। কিন্তু আমরা পারছি না।’ সিনিয়র খেলোয়াড়দের রান না পাওয়া সম্পর্কে কোচ বলেন, ‘অনেকদিন পর নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে সিরিজ খেলতে এসেই যে খেলোয়াড়রা সব ভালো করে ফেলবে এটা ভাবা ঠিক নয়।’ তবে আগামীতে সিনিয়রদের রান খরা কমবে বলে তিনি আশা করেন। টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগে টিম মিটিংয়ে কী আলোচনা-নির্দেশনা এসেছে জানতে চাইলে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘সবার কার কোথায় ভুল হয়েছে সে সব চুলচেরা বিশ্লেষণ করা হয়েছে টিম মিটিংয়ে।’ দেশবাসীর সমালোচনার মুখে তানবীরকে টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে রাখা হয় নি কিনা জানতে চাইলে কোচ না সূচক জবাব দেন।-বাংলা ট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ