অবশেষে মেয়রের হস্তক্ষেপে চাঁচকৈড় বাজারের টোল প্রত্যাহার

আপডেট: জুলাই ১৮, ২০১৭, ১২:৪৯ পূর্বাহ্ণ

গুরুদাসপুর প্রতিনিধি


টোল আদায় বন্ধের সিদ্ধান্তের পর এসব পণ্য ব্যবসায়ীরা বৈঠক করেন-সোনার দেশ

অবশেষে নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসভার চাঁচকৈড় হাট-বাজার থেকে রড-সিমেন্ট, লৌহজাত, প্লাস্টিকজাত পণ্য, মেশিনারীজ সামগ্রীর ওপর থেকে টোল প্রত্যাহার করা হয়েছে। পৌর মেয়র শাহনেওয়াজ আলীর হস্তক্ষেপে গতকাল সোমবার থেকে তা বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে।
এদিকে টোল আদায় বন্ধের সিদ্ধান্তের পর এসব পণ্য ব্যবসায়ীরা রোববার রাতে চাঁচকৈড় বাজারের মামুন এন্টারপ্রাইজে এক বিশেষ বৈঠকে বসেন। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সাবেক সাংসদ আবুল কাশেম সরকারের সভাপতিত্বে বৈঠকে বক্তব্য দেন চাঁচকৈড়হাট-বাজার রড-সিমেন্ট ও লৌহজাত ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি হাজি আলমগীর কবির, সহসভাপতি দিলীপ কুমার কর্মকার, সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন শাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক আল মামুন ও ব্যবসায়ী সংগঠনের উপদেষ্টা এমদাদুল হক মোল্লা প্রমুখ। বৈঠকে সকল ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।
ব্যবসায়ীরা বলেন, ২০০১ সাল থেকে এসব পণ্য-সামগ্রীর ওপর কোন রকম টোল আদায় করা হয় নি। কিন্তু ১৪২৪ বঙ্গাব্দের শুরু থেকে হাট ইজারাদার কর্তৃপক্ষ ক্রেতাদের কাছ থেকে এসব পণ্য-সামগ্রীর টোল আদায় শুরু করেন। এতে ক্রেতা কমে যাওয়ায় ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিলেন। এ কারণে ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে প্রতিবাদ কর্মসূচিও পালন করেন। সর্বশেষ বাড়তি এই টোল আদায় বন্ধের দাবিতে ৯ জুলাই এসব ব্যবসায়ীরা জরুরিসভা ডেকে দুর্ভোগের কারণ উল্লেখ করে সাংবাদ সম্মেলন করেন। এনিয়ে ১১ জুলাই প্রথম আলোসহ বিভিন্ন দৈনিকে সংবাদ প্রকাশ হয়।
এসব ব্যবসায়ী নেতারা বলেন, পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর মেয়র এসব ব্যবসায়ীদের ডেকে তাদের সমস্যার কথা শুনে টোল আদায় বন্ধের প্রতিশ্রুতি দেন ব্যবসায়ীদের। সোমবার থেকে তা বাস্তবায়ন শুরু হয়। ব্যবসায়ীদের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয়ে মেয়রের ্এই সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এসব ব্যবসায়ীরা।
মেয়র শাহনেওয়াজ আলী বলেন, চাঁচকৈড়হাট-বাজারকে ঘিরে এলাকার বিরাট জনগোষ্ঠীর আর্থিক শক্তি গড়ে উঠেছে। সবদিক বিবেচনা করে এসব পণ্য থেকে টোল আদায় বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। একই সাথে ক্রেতা-ব্যবসায়ীদের সাময়িক বিড়ম্বনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন মেয়র।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ