অবাঞ্ছিত ঘোষণার পর শাবি ভিসির বাসভবন ঘেরাও

আপডেট: জানুয়ারি ১৭, ২০২২, ৭:২০ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ দাবিতে তার বাসভবন ঘেরাও করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। পুলিশের বাধা উপেক্ষা করেই দুই হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী বিকেল সোয়া চারটার দিকে তার বাসভবন ঘেরাও করে। এদিকে পরিস্থিতি মোকাবিলায় ভিসির বাসভবনসহ ক্যাম্পাসে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আর শিক্ষার্থীরা এ সময় ভিসির বাসভবনের সামনে ফুল নিয়ে আসেন পুলিশকে দিতে। তারা ফুল নিয়ে পুলিশকে চলে যেতে বলেন এবং শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে বাধা না দেওয়ার আহ্বান জানান।

এ সময় সেখানে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তা (ডিসি) মোহাম্মদ আজবাহার আলী শেখ বলেন, ‘আমরা প্রশাসনের নির্দেশে এখানে শান্তিপূর্ণভাবে দায়িত্ব পালন করছি। শিক্ষার্থীরা শান্তি থাকলে আমরাও শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান করব। আমরা অহেতুক শিক্ষার্থীদের উপর চড়াও হতে চাই না’।

এর আগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি হামলার ঘটনায় ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি আন্দোলনের অংশ হিসেবে সব প্রশাসনিক ভবন এবং একাডেমিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন তারা।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুর পৌঁনে তিনটার দিকে প্রশাসনিক ভবন-১, প্রশাসনিক ভবন-২, একাডেমিক ভবন বি এবং একাডেমিক ভবন ডিতে তালা দেওয়া হয়।

এর আগে প্রথম ছাত্রীহল, বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হল, ছেলেদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল এবং সৈয়দ মুজতবা আলী হলে তালা দেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

দুপুরে এক ব্রিফিংয়ে তারা বলেন, যে কোন পরিস্থিতিতে আমরা হল ও ক্যাম্পাস ছাড়ব না। যতক্ষণ না স্বৈরচার উপাচার্য পদত্যাগ করতেছেন, ততক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলনের মাঠে থাকব।

পাশাপাশি ভিসির পদত্যাগের জন্য রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ে আচার্য মো. আব্দুল হামিদ বরাবর স্মারক লিপি দেবেন বলে জানিয়েছেন তারা।

এদিকে উপাচার্যের পাশাপাশি দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হওয়ায় প্রক্টর ড. আলমগীর কবীর, ছাত্র উপদেষ্টা ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহীর উদ্দিন আহমেদেরও পদত্যাগ চেয়েছেন শিক্ষার্থীরা।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ