অব্যাহত দুঃসময়! FATF-এর ধূসর তালিকা থেকে রেহাই পেল না পাকিস্তান

আপডেট: অক্টোবর ২১, ২০২১, ২:৪৭ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক


FATFএর ধূসর তালিকা থেকে মুক্তি পেল না পাকিস্তান। ‘ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স’ জানিয়ে দিয়েছে ২০১৮ সালে সন্ত্রাসদমনে যে ২৭টি শর্তপূরণ করতে বলা হয়েছিল পাকিস্তানকে , তার মধ্যে ২৬টি পূরণ করছে ইমরানের দেশ। একটি এখনও বাকি রয়েছে। তাই ধূসর তালিকাতেই থাকতে হবে তাদের।
কিন্তু বেঁধে দেওয়া শর্তের সবগুলি পূরণ করার পরও একটি শর্ত কেন অধরা থেকে গিয়েছে পাকিস্তানের? কী সেই শর্ত? জানা যাচ্ছে, সেই একমাত্র না পূরণ হওয়া শর্তটি হল সন্ত্রাসে আর্থিক মদত রুখতে পর্যাপ্ত পদক্ষেপ করা। প্যারিস স্থিত ঋঅঞঋ-এর মতে, যা আজও করে উঠতে পারেনি ইসলামাবাদ। তাই ধূসর তালিকা থেকে এবারও বেরনো হল না পাকিস্তানের।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের জুন মাসে ধূসর তালিকাভুক্ত করা হয় ইমরান খানের দেশকে। সেই সঙ্গে তাদের নির্দেশ দেওয়া হয় ২০১৯ সালের মধ্যে সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়া ও আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ থেকে মুক্ত হতে অ্যাকশন প্ল্যানগুলি মেনে চলতে। পরে করোনা পরিস্থিতিতে এই ডেডলাইন পরে আরও বাড়িয়ে দেওয়া হয়। তারপর থেকেই ইমরান প্রশাসন মরিয়া হয়ে চেষ্টা করেছে ওই তালিকার ছায়া থেকে বেরিয়ে আসার। কিন্তু প্যারিস স্থিত ঋঅঞঋ-এর একের পর এক বৈঠকের পরও কাটেনি বিপদ। ধূসর তালিকা থেকে আর বেরনো হয়নি ইসলামাবাদের।

গত জুনে যখন দেখা গিয়েছিল, পাকিস্তানকে ধূসর তালিকাতেই থাকতে হচ্ছে তখন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি বলেছিলেন, তাঁরা আর ৩-৪ মাসের মধ্যেই অবশিষ্টটি পূরণ করে ফেলবেন। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, শেষ পর্যন্ত তা সম্ভব হয়নি। আসলে পাকিস্তান যে আজও ‘জঙ্গিদের স্বর্গ’ হয়ে রয়েছে তা বারবার পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, কেবল পাক অধিকৃত কাশ্মীরেই রয়েছে অন্তত ৮টি জঙ্গি গোষ্ঠী।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ