মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর সঙ্গে জান্তাবিরোধীদের সংঘর্ষ, নিহত ৪

আপডেট: জুন ২২, ২০২১, ৯:২৬ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


অভিযানের ছবিটি প্রকাশ করেছে সেনাবাহিনী

মিয়ানমারের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়েছে সেনা অভ্যুত্থানবিরোধী একটি গোষ্ঠী। পিউপিল’স ডিফেন্স ফোর্স (পিডিএফ) নামের এই গোষ্ঠীটি এই প্রথম বড় কোনও শহরে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সরাসারি সংঘাতে জড়ালো। সেনাবাহিনী জানিয়েছে, এই ঘটনায় চার বিক্ষোভকারী নিহত হযেছে। মঙ্গলবার এই সংঘাতের মধ্য দিয়ে দেশটির পরিস্থিতি নতুন দিকে মোড় নিলো মনে করা হচ্ছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।
গত ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারে অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখল করে সেনাবাহিনী। এর বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ শুরু হলে সহিংস দমন নীতি গ্রহণ করে জান্তা সরকার। নিহত হয় শত শত বিক্ষোভকারী। এই সহিংসতার জেরে কয়েকটি সশস্ত্র গোষ্ঠী সম্মিলিত হয়ে গঠন করে পিডিএফ।
মঙ্গলবারের আগ পর্যন্ত পিডিএফ সদস্যরা দুর্গম ও ছোট ছোট এলাকায় সক্রিয় ছিলো। তবে মঙ্গলবার দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরে তাদের সক্রিয়তায় জান্তাবিরোধী আন্দোলন নতুন পর্যায়ে পৌঁছে গেলো বলে মনে করছেন অনেকেই।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, পিডিএফ সদস্যদের ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে এমন অভিযোগে মঙ্গলবার মান্দালয়ের একটি বোর্ডিং স্কুলে সেনাবাহিনী অভিযান শুরু করে। এরপরই সেখানে পাল্টাপাল্টি গুলিবর্ষণ শুরু হয়।
মিয়ানমারের জান্তা সরকার জানিয়েছে, অভিযানে চার বিক্ষোভকারী নিহত এবং আরও আটজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়া বেশ কয়েকজন সেনা সদস্য আহত হয়েছে বলেও স্বীকার করেছে তারা। মান্দালয় পিডিএফ সোস্যাল মিডিয়ায় এক পোস্টে জানিয়েছে, চান মিয়া থার সি টাউনশিপের ৫৪তম সড়কে অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু অস্ত্র জব্দ করেছে সেনাবাহিনী। কয়েকজনকে আটকের কথাও জানিয়েছে তারা।
স্থানীয়রা জানিয়েছে, সহিংসতার পর ওই এলাকার নিরাপত্তা জোরদার করেছে সেনাবাহিনী।
তথ্যসূত্র: বাংলাট্রিবিউন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ