অসমে বন্যায় জলের তলায় হাসপাতাল, রাস্তাতেই হচ্ছে ক্যানসার রোগীর কেমোথেরাপি!

আপডেট: জুন ২৮, ২০২২, ১২:২৮ অপরাহ্ণ

এ ভাবেই চলছে বন্যা বিধ্বস্ত অসমে রোগীগের চিকিৎসা।

সোনার দেশ ডেস্ক :


ফি বছরে বন্যার কবলে পড়ে অসম। তবে এ বার বন্যার ভয়বহতা তুলনামূলক বেশি। ইতিমধ্যে ১২২ জন অসমবাসীর প্রাণ কেড়েছে বন্যা। জলবন্দি প্রায় ২২ লক্ষ মানুষ। বাড়ি-ঘর, চাষের জমি— সব ভেসে গিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে দেখা গেল এক মর্মান্তিক ছবি।

বন্যার জলে ভেসে গিয়েছে হাসপাতাল। যান চলাচলের রাস্তাও ডুবে গিয়েছে বন্যার জলে। এই অবস্থায় রাস্তার এক কোণে উঁচু জায়গায় চলছে ক্যানসার রোগীদের কেমোথেরাপি!

শিলচরের কাছার ক্যানসার হাসপাতাল সম্পূর্ণ জলমগ্ন। জল ঢুকে পড়েছে প্রতিটি ঘরে। এই অবস্থায় রোগীদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে খোলা আকাশের নীচে। সেখানেই চলছে ক্যানসার আক্রান্তদের চিকিৎসা।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ১৫০ শয্যাবিশিষ্ট ‘কাছার ক্যানসার হসপিট্যাল অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার’ গত কয়েক দিন ধরেই জলমগ্ন। অবস্থা এমনই যে, রোগী এবং হাসপাতাল কর্মীদের লাইফ জ্যাকেট পরিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তার মধ্যে চালু রয়েছে রোগী পরিষেবা।

বন্যায় এমনই ভয়াবহ পরিস্থিতি হয়েছে বরাক উপত্যকা সংলগ্ন ওই এলাকার। এক চিকিৎসক জানান, কেমোথেরাপি-সহ দরকারি ডাক্তারি পরীক্ষা এবং চিকিৎসা তাঁরা রাস্তার উপরেই করছেন। যেখানে জল একটু কম সেখানেই শয্যা পেতে চলছে রোগীর চিকিৎসা।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা