‘অসামাজিক’ কাজে বাধা দেয়ায় রাবি প্রহরীকে মারধর

আপডেট: ডিসেম্বর ১১, ২০১৬, ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ

রাবি প্রতিবেদক



বান্ধবীর সঙ্গে ‘অসামাজিক’ কাজে বাধা দেয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রহরীকে মারধর করেছে এক শিক্ষার্থী। গতকাল শনিবার বিকেলে সাড়ে ৪টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র কলা ভবনে এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই শিক্ষার্থীকে প্রক্টর পুলিশে তুলে দিলেও পুলিশ তাকে ছেড়ে দেয়।
আটক অনিক মুক্তাদির বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। নগরীর লক্ষ্মীপুরে তার বাসা।
প্রত্যক্ষদর্শী মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক শিব শঙ্কর রায় জানান, গতকাল শনিবার বিকেলে আমি একটি পরীক্ষার হলে দায়িত্বরত ছিলাম। এসময় ছাদের উপরে অনিক নামের ওই ছেলেকে এক মেয়ের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পাই। তখন আমি আসলাম নামে কর্তব্যরত এক প্রহরীর মাধ্যমে ওই ছেলেকে ডেকে পাঠাই। ওই প্রহরী তাকে আমার কথা বললে ওই মেয়ে সেখান থেকে দ্রুত প্রস্থান করে। এরপর প্রহরী অনিককে আমার কাছে নিয়ে আসতে চাইলে সে ওই প্রহরীকে কিলঘুষি মারতে শুরু করে। পরে পালিয়ে যাওয়ার সময় রবীন্দ্র ভবনের সামনে থাকা শিক্ষার্থীরা তাকে ধরে ফেলে।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মজিবুল হক আজাদ খান বলেন, ‘তাকে পুলিশে দেয়া হয়েছে। পুলিশ ব্যবস্থা নিবে।’ নগরীর মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।