অস্ট্রেলিয়াকে ২১ রানে হারিয়ে দিল আফগানিস্তান, জমে গেল বিশ্বকাপে ভারতের গ্রুপের লড়াই

আপডেট: জুন ২৩, ২০২৪, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


অস্ট্রেলিয়াকে ২১ রানে হারিয়ে দিল আফগানিস্তান। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার এইটের লড়াই জমিয়ে দিলেন রশিদ খানেরা। আফগান বোলিং আক্রমণের সামনে ব্যাটিং বিপর্যয় হল অস্ট্রেলিয়ার। কাছে এল না প্যাট কামিন্সের হ্যাটট্রিকও। প্রথমে ব্যাট করে আফগানিস্তান করে ৬ উইকেটে ১৪৮ রান। জবাবে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস শেষ হল ১৯.২ ওভারে ১২৭ রানে।

টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক মিচেল মার্শ। তাঁর সেই সিদ্ধান্ত কাজে এল না। আফগানিস্তানের দুই ওপেনার ১১৮ রানের জুটি তৈরি করলেন। রহমানুল্লাহ গুরবাজ় করলেন ৪৯ বলে ৬০ রান। মারলেন ৪টি করে চার এবং ছক্কা।

অপর আফগান ওপেনার ইব্রাহিম জ়াদরান খেললেন ৪৮ বলে ৫১ রানের ইনিংস। তাঁর ব্যাট থেকে এল ৬টি চার। এই জুটিই মূলত চালকের আসনে বসিয়ে দেয় আফগানিস্তানকে। রশিদের দলের পরের ব্যাটারেরা অবশ্য তেমন রান পেলেন না। আফগানিস্তানের পক্ষে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান করিম জানাতের ৯ বলে ১৩।

আফগানিস্তানের ইনিংসের শেষ দিকে প্যাট কামিন্স জ্বলে উঠলেন বল হাতে। আফগান ইনিংসের ১৮তম ওভারের শেষ বলে কামিন্স আউট করেন আফগানিস্তানের অধিনায়ক রশিদকে। সেটি ছিল তাঁর তৃতীয় ওভার। ২০তম ওভারেও কামিন্সের হাতে বল তুলে দেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক মার্শ। সে সময় আফগানিস্তানের রান ছিল ৪ উইকেটে ১৪১।

ওভারের প্রথম দু’বলে কামিন্স আউট করেন করিম এবং গুলবাদিন নাইবকে। নিজের পর পর তিন বলে ৩টি উইকেট তুলে নেন কামিন্স। সম্পূর্ণ করেন হ্যাটট্রিক। বিশ্বের প্রথম ক্রিকেটার হিসাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে একাধিক হ্যাটট্রিক করলেন তিনি।
২৮ রানে ৩ উইকেট নিলেন কামিন্স। তিনিই অস্ট্রেলিয়ার সফলতম বোলার। ২৮ রানে ২ উইকেট নিলেন অ্যাডাম জাম্পা। ১৯ রান দিয়ে ১ উইকেট মার্কাস স্টোইনিসের।

জয়ের জন্য ১৪৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু তাদের প্রথম সারির কোনও ব্যাটারই সুবিধা করতে পারলেন না আফগানিস্তানের বোলিং আক্রমণের সামনে। দুই ওপেনার ট্র্যাভিস হেড (শূন্য) এবং ডেভিড ওয়ার্নার (৩) দ্রুত ফিরে যান। রান পেলেন না মার্শও (১২)।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ব্যাট হাতে একমাত্র লড়াই করলেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ৪১ বলে ৫৯ রানের ইনিংস খেললেন তিনি। স্টোইনিস করলেন ১৭ বলে ১১ রান। বাকি কেউই দু’অঙ্কের রান করতে পারলেন না। অস্ট্রেলিয়াও পুরো ২০ ওভার ব্যাট করতে পারল না। ৪ বল আগেই শেষ হয়ে গেল তাদের ইনিংস।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আফগানিস্তানের সফলতম বোলার নাইব ২০ রানে ৪ উইকেট নিলেন। ২০ রানে ৩ উইকেট নবীন উল হকের। ১ রান দিয়ে ১ উইকেট মহম্মদ নবির। ১০ রানে ১ উইকেট আজ়মতুল্লা ওমরজাইয়ের। ২৩ রান খরচ করে ১ উইকেট পেলেন রশিদ খান।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার অনলাইন

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ