অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফর স্থগিত

আপডেট: এপ্রিল ৯, ২০২০, ৭:২৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


গত কিছুদিনের ঘটনা প্রবাহে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফরের ভাগ্য অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। বাকি ছিল কেবল আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। সেটিও হয়ে গেল। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে স্থগিত হয়ে গেছে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টেস্ট সিরিজ।
আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের দুটি ম্যাচ খেলতে আগামী জুনে বাংলাদেশে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। বৃহস্পতিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিসিবি জানিয়েছে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তীতে ঠিক করা হবে সিরিজের নতুন সূচি।
বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে এই সিরিজ নিয়ে অনিশ্চয়তা বাড়ছিল ক্রমেই। গত ৩১ মার্চ অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক টিম পেইন বলেছিলেন, এই সফরের কোনো সম্ভাবনা আপাতত দেখছেন না তিনি। এরপরই অনেকটা নিশ্চিত হয়ে যায় সিরিজের বাস্তবতা।
করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার বাস্তবতায় সিরিজ স্থগিত করাই সবচেয়ে উপযুক্ত সিদ্ধান্ত, বলছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরি।
“দুই দেশের ক্রিকেটার ও সমর্থকদের জন্য এটি স্বাভাবিকভাবেই হতাশার। তবে কোভিড-১৯ রোগের প্রাদুর্ভাবে বৈশ্বিক চিত্র ও জরুরি স্বাস্থ্য পরিস্থিতির যে অবস্থা, তাতে বিসিবি ও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া একমত হয়েছে যে এটিই সবচেয়ে বিচক্ষণ ও বাস্তবিক সিদ্ধান্ত।”
“আমাদের আশা, দ্রুত পরিস্থিতির উন্নতি হবে এবং নিকট ভবিষ্যতে সুবিধাজনক সময়ে সিরিজটি আমরা আয়োজন করতে পারব।”
অস্ট্রেলিয়ার যে ব্যস্ত সূচি, তাতে বড় একটা অনিশ্চয়তা তৈরি হলো যে সিরিজটি আদৌ হবে কিনা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী কেভিন রবার্টস অবশ্য আশ্বাস দিলেন বাংলাদেশকে।
“সফর বাতিল করা সবসময়ই দুঃখজনক। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। তাদের খোলামেলা, বাস্তব ও দায়িত্বপূর্ণ আলোচনাই আমাদের ঐক্যমত্যে পৌঁছাতে সহায়তা করেছে। আমাদের মানুষের স্বাস্থ্যকেই দুই বোর্ড সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে এবং সিরিজ স্থগিতের সিদ্ধান্তে সেটিরই প্রতিফলন পড়েছে।”
“আমরা সবাই জানি, বৈশ্বিক ক্রিকেট সূচি খুবই ঠাসা। তারপরও বাংলাদেশের প্রতি আমাদের অঙ্গীকার পূরণে সবকিছুই আমরা করব এবং নতুন তারিখ ঠিক করা নিয়ে বিসিবির সঙ্গে কাজ করে যাব।”
এই নিয়ে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে পিছিয়ে গেল বাংলাদেশের তিনটি সিরিজ। এই এপ্রিলেই একটি ওয়ানডে ও একটি টেস্ট খেলতে পাকিস্তানে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। মে মাসে যুক্তরাজ্য সফরে আয়ারল্যান্ডের সঙ্গে ছিল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ। স্থগিত হয়ে গেছে দুটিই। বিশ্বজুড়েই স্থগিত বা বাতিল হয়ে গেছে অনেক খেলা, টুর্নামেন্ট, লিগ।
তথ্যসূত্র: বিডিনিউজ