অস্ট্রেলিয়া-বধে কাজ করেছে ‘রহস্যময় এক ডেলিভারি’

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১, ২০১৭, ১:৪৬ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টেস্ট শুরু হওয়ার মাত্র ৫ দিন আগে সাকিব-মিরাজ-তাইজুলদের সঙ্গে কাজ শুরু করেছিলেন সুনীল যোশি। মাত্র দুই মাসের জন্য বিসিবির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ এ স্পিন বোলিং কোচের শুরুটাও হলো দুর্দান্ত। তিনি যে প্রথম পরীক্ষাতেই সফল, সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। স্পিনারদের হাত ধরেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঐতিহাসিক টেস্ট জিতলো বাংলাদেশ। আর সাকিবদের ‘একটি ডেলিভারি’ শিখিয়ে এ জয়ে ইতিবাচক অবদান রাখতে পেরে খুশি ভারতের সাবেক স্পিনার।
বাংলাদেশের সঙ্গে আরেকটি ঐতিহাসিক মুহূর্তের সাক্ষী যোশি। ২০০০ সালে প্রথম টেস্ট ভারতের বিপক্ষে খেলেছিল বাংলাদেশ। ওই ম্যাচে ৮ উইকেট নিয়ে স্বাগতিকদের হৃদয় ভেঙেছিলেন যোশি। ৯২ রানের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংসও ছিল তার। ১৭ বছর পর সেই নভেম্বরের কথা মনে করিয়ে দিতেই যোশির মুখে হাসি, ‘ওটা ছিল ঐতিহাসিক একটা উপলক্ষ। আর এখন এটাও। ইতিবাচক অবদান রাখতে পেরে আমি খুশি।’
বাংলাদেশের ২০ রানের জয়ে ২০ উইকেটের ১৯টি নিয়েছে স্বাগতিক স্পিনাররাই। সাকিব-মিরাজদের এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের রহস্যের কিছুটা উন্মোচন করেছেন যোশি। ভারত সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার ভোগান্তির কথা তুলে ধরে তিনি বলেছেন, ‘একটা ডেলিভারি আছে, ভারত সিরিজ থেকে যেটা বুঝে উঠতে কষ্ট হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার। এ সিরিজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমি সেটা বলতে চাই না। কারণ আমি চাই না, সেটা জেনে অস্ট্রেলিয়া কোনও পাল্টা পরিকল্পনা নিয়ে হাজির হোক।’
বাংলাদেশি বোলাররা ওই ডেলিভারিতে সফল হচ্ছে দেখে উচ্ছ্বসিত যোশি। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে তিনি বলেছেন, ‘ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়া খেলার সময় আমি এর সন্ধান পেয়েছিলাম। বাংলাদেশি বোলারদের আমি ওই ডেলিভারি করে যেতে বলেছিলাম। বোঝাই যাচ্ছে সেটা কাজে লাগছে।’
অস্ট্রেলিয়ানরা গত ভারত সফরে রবীন্দ্র জাদেজার স্পিনে নাকানিচুবানি খেয়েছিল। বাঁহাতি দুই স্পিনার সাকিব ও তাইজুলও সেই পথ অনুসরণ করে সফল হচ্ছেন জানালেন যোশি। ভারতের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যমটির কাছে তাদের সামর্থ্যের প্রশংসা করেছেন তিনি, ‘জাদেজা ও অশ্বিন ওই সিরিজে কীভাবে বল করেছে তার ভিডিও দেখেছে তারা। ভুলে যাবেন না, বাংলাদেশি স্পিনারদের দারুণ গুণ আছে।’ বিশেষ করে চাপের মধ্যেও সাকিবের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে মুগ্ধ যোশি, ‘কোনও সন্দেহ নেই যে সাকিব বোলিং ইউনিটের বিভাগের নেতা।’-বাংলা ট্রিবিউন