আইএসএস-এ মুলো ফলাল নাসা

আপডেট: December 2, 2020, 8:59 pm

সোনার দেশ ডেস্ক:


মঙ্গল এবং চাঁদে নিয়মিত সফরের পরিকল্পনা আছে নাসার। তাহলে সেখানে যাওয়া মহাকাশচারীরাও যাতে নিয়মিতভাবে বাড়ির মতোই টাটকা ফলমূল, সব্জি খেতে পান। যাতে তাঁদের শরীরে ভিটামিন, ক্যালসিয়াম, প্রোটিনের অভাব না নয়। সেই লক্ষ্যেই আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন বা আইএসএস-এ ক্ষুদ্র মাধ্যাকর্ষণ বা মাইক্রগ্র‌্যাভিটিতে কলোম্বাস মডিউলে নাসার গবেষকরা ফলিয়েছেন মুলোর মতো সব্জি। গবেষকরা বলছেন গাছেরা লা বা নীল আলোয় খুব ভালো বেড়ে ওঠে। মাটির বদলে বালিশে লাগানো হয়েছিল গাছের চারা। যাতে সার সমানভাবে পায় চারাগুলি। মুলোকেই নাসার বিজ্ঞানীরা বেছে নিয়েছিলেন কারণ, এটা তাড়াতাড়ি বাড়ে এবং অ্যারাবাইডোপসিসের মতো মহাকাশে সব থেকে বেশি যে গাছ নিয়ে চর্চা হয়, তারই মতো এর জিন। এই মুলোগুলি এখন খাওয়ার যোগ্য হয়ে উঠেছে। খুব শিগগিরি পৃথিবীতে এর কিছু নমুনা পাঠানো হবে আরও পরীক্ষার জন্য বলে জানিয়েছে নাসা। এলইডি আলো, ঝুরো মাটি, ১৮০টির বেশি সেন্সর এবং ক্যামেরা যা নিয়ন্ত্রিত হয়েছিল নাসার ফ্লোরিডা কেন্দ্র থেকে, সর্বক্ষণ নজরে রেখেছিল মহাকাশে উৎপন্ন হওয়া সব্জিগুলিকে।
তথ্যসূত্র: আজকাল

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ