আইনশৃঙ্খলা বাহিনির পরিচয়ে আটক || বড়াইগ্রামে সাত দিনেও সন্ধান মেলে নি তিন যুবকের

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১৭, ১২:১৫ পূর্বাহ্ণ

বড়াইগ্রাম প্রতিনিধি



নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নের কায়েমকোলা গ্রাম থেকে রফিকুল ইসলাম ভুট্টু (৩২), মিঠু মিয়া (৩৪) ও আতিকুর রহমান (২৪) নামে তিন যুবককে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে আটকের অভিযোগ উঠেছে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধার পরে তাদের নিজ বাড়ি ও বাজার থেকে আটক করে নিয়ে যাওয়ার সাত দিন পার হলেও কোন সন্ধান পাওয়া যায় নি। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার বিকেলে বড়াইগ্রাম থানায় একটি সাধরণ ডায়রি (জিডি) করেছেন রফিকুলের বাবা আতাউর রহমান।
আতাউর রহমান জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে সাদা পোশাকে ৭-৮ জন লোক সশস্ত্র অবস্থায় প্রথমে মেকার প্রামাণিকের ছেলে মিঠু মিয়া, পরে মসলেম উদ্দিনের ছেলে আতিকুর রহমানকে আটক করে। এসময় তারা রাতের খাবার খাচ্ছিলেন। পরে তাদেরকে নিয়ে ভ্যানগাড়িতে করে নিয়ে যাওয়ার পথে কামারদহ বাজার পার হয়ে যাওয়ার সময় রফিকুল ডেকে মিঠু মিয়াকে বলেন রাতে সে কোথায় যাচ্ছেন। এসময় ভ্যান থামিয়ে তারা রফিকুলকেও আটক করে নিয়ে যায়। এরপর তাদেরকে কি অপরাধে আটক করা হলো জানতে বড়াইগ্রাম থানা, নাটোর সদর থানা ও নাটোর র‌্যাব ক্যাম্পে যোগাযোগ করলে সংশ্লিষ্টরা এ নামের কাউকে আটক করে নি বলে জানান। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে সাদা পোশাকে কোন টিম বৃহস্পতিবার বের হয় নি বলেও জানান তারা।
তিনি আরো জানান, গত সাতদিন তারা নিয়মিত থানায় খোঁজ রাখাসহ নানাভাবে অনুসন্ধান চালিয়েও কোন সন্ধান না পেয়ে অবশেষে থানায় জিডি করেছেন।
এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহরিয়ার খান বলেন, নিখোঁজ যুবককে আটকের সঙ্গে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ কিছুই জানে না। অন্যকোন বাহিনী আমাকে এ বিষয়ে অবহিতও করে নি। এখন জিডির আলোকে তদন্ত করে দেখা হবে।