আইন অমান্য করে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

আপডেট: মার্চ ২১, ২০১৭, ১:২৯ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক



নগরীর আওতাভুক্ত এলাকায় আইন অমান্য করে মহাসড়কে চলছে শ্যালো ইঞ্জিন চালিত যানবাহন। এসব যানবাহনে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছে মানুষজন। এর ফলে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। অথচ দেখার কেউ নেই।
গত বছর আইন করে থ্রি-হুইলার, শ্যালো ইঞ্জিনচালিত ভটভটি ও ট্যাম্পু মহাসড়কে চালানো নিষেধ করেছিল সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। এরপর সারাদেশব্যাপি ব্যাপক অভিযান চালায় পুলিশ। সেই নির্দেশ এখনো বহাল থাকলেও মহাসড়কে আবার দেদারসে চলাচল করছে তিন চাকাবিশিষ্ট শ্যালোইঞ্জিন চালিত যানবাহন।
গতকাল নগরীর কোর্ট স্টেশন বাইপাস, কাশিয়াডাঙ্গা মোড়, নওদাপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় মহাসড়কে তিন চাকাবিশিষ্ট এসব যানবাহনে মানুষদের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে দেখা গেছে।
যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অল্প খরচে দ্রুততার সঙ্গে পৌঁছানোর জন্যই তারা এসব যানবাহন ব্যবহার করে। এছাড়া আশেপাশের গ্রাম এলাকা থেকে নিকটবর্তী বাজারে যাওয়ার জন্য এসব যানবাহন খুব কাজে লাগে। মালামাল বহন করা যায়। তাই যাত্রীরা এসব যানবাহনে চলাচল করে।
চালকরা জানিয়েছে, নিষেধ থাকলেও তারা গাড়িগুলো চালায়। অনেক টাকা দিয়ে গাড়ি কেনার পর ফেলা রাখা তা আমাদের মতো মানুষদের জন্য ক্ষতিকর। একসঙ্গে অনেক টাকা আটকা পড়ে যায়। তাই বাধ্য হয়ে তারা গাড়ি চালাচ্ছে।
নগর পুলিশের মুখপাত্র ও সিনিয়র সহকারী কমিশনার (ট্রাফিক) ইফতে খায়ের আলম জানান, প্রতিনিয়ত নগরের চারটি প্রবেশমুখে গাড়ি তল্লাশি চলে। কোনো ধরনের তিন চাকাবিশিষ্ট গাড়ি মহাসড়কে তারা চলাচল করতে দেয়না। এরপরও তিন চাকাবিশিষ্ট এই গাড়িগুলো চলাচল করতে দেখা গেলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ