আইপিএল খেলবেন, শ্রীলঙ্কা যাবেন না সাকিব

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১, ৫:০১ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে মার্চে আসন্ন নিউ জিল্যান্ড সফর থেকে ছুটি নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। এবার এপ্রিলের শ্রীলঙ্কা সফর থেকেও সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ক্রিকেট অপারেশন চেয়ারম্যান আকরাম খান ভারতীয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে এ খবর নিশ্চিত করেছেন।
এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সাকিব আবারও আইপিএলে ফিরছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে তাকে কিনে নিয়েছে ২০১৪ সালে শেষ শিরোপা জেতা দলটি। এর আগে ২০১১ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত কলকাতার জার্সিতে খেলেছেন এবং দুইবার চ্যাম্পিয়নশিপ জেতা দলে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।
ধারণা করা হচ্ছিল, দল পেলেও এপ্রিল-মে মাসে হতে যাওয়া এই আইপিএলে খুব বেশি ম্যাচ হয়তো খেলতে পারতেন না সাকিব। কারণ ওই সময় দুটি টেস্ট খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাওয়ার কথা বাংলাদেশের। পরের মাসে তিন ওয়ানডে খেলতে লঙ্কানরাও আসতে পারে বাংলাদেশে, ওই সিরিজে ফিটনেস পর্যবেক্ষণের ভিত্তিতে দেখা যেতে পারে সাকিবকে। যদিও কোনও সূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি।
সাকিবের ছুটির আবেদনে না করেনি বোর্ড। তাকে জোর করার কারণ দেখছেন না আকরাম। ক্রিকবাজকে এই বোর্ড কর্মকর্তা বলেছেন, ‘আইপিএলে খেলতে চায়, এজন্য শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ থেকে সরে দাঁড়াতে সে সম্প্রতি আমাদের একটি চিঠি দিয়েছে। আমরা তাকে অনুমতি দিয়েছি। কারণ যার খেলার (জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট) কোনও আগ্রহ নেই, তাকে জোরাজুরি করার কোনও মানে নেই।’
এর আগে ফেব্রুয়ারি-মার্চে আসন্ন নিউ জিল্যান্ড সফরের জন্য পিতৃত্বকালীন ছুটি চান সাকিব এবং পেয়েও গেছেন। সর্বশেষ তিনি চট্টগ্রাম টেস্টে খেলেন। তৃতীয় দিন চোটে পড়লে আর নামেননি এবং ঢাকা টেস্ট থেকেও ছিটকে যান। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে জাতীয় দলে ফিরেছিলেন সাকিব। হন সিরিজের সেরা খেলোয়াড়।
টেস্ট সিরিজ থেকে সাকিবের সরে দাঁড়ানো এটাই প্রথম নয়। ক্লান্তি কমাতে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে এই ফরম্যাট থেকে ছয় মাসের বিরতি নিয়েছিলেন। আর জাতীয় দলকে একপাশে রেখে আইপিএল খেলা প্রথম খেলোয়াড় তিনি নন। এর আগে আইপিএল প্লে অফে খেলতে যাওয়া খেলোয়াড়দের ছাড়াই নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে হোম সিরিজের দল ঘোষণা করেছিল ইংল্যান্ড।
তথ্যসূত্র: রাইজিংবিডি