আক্কেলপুরে নকল স্বর্ণমুদ্রাসহ দুই প্রতারক আটক

আপডেট: নভেম্বর ২৩, ২০২২, ১১:১৬ অপরাহ্ণ

আক্কেলপুর প্রতিনিধি:


প্রত্যরণার মাধ্যমে নকল স্বর্ণের মুদ্রা বিক্রির অভিযোগে জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে অভিযান চালিয়ে সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের মূলহোতাসহ দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব।
মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) রাত সাড়ে ১০ টায় জেলার আক্কেলপুরের ইসমাইলপুর বাজার এলাকা থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।
আটককৃতরা হলেন,জয়পুুরহাট সদর উপজেলার কুড়িমাধবপাড়া এলাকার আব্দুর রশিদের ছেলে মিলন হোসেন (৩২) ও ক্ষেতলাল উপজেলার মহব্বতপুর গ্রামের ফজলুল বারির ছেলে আব্দুল বারি (৫০)।
র‌্যাব-৫, জয়পুরহাট ক্যাম্পের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জয়পুুরহাট ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক মেজর মো. মোস্তফা জামান জানান, প্রতারণার শিকার জহুরুল ইসলামের অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করে।
তিনি জানান, উপজেলার জামালগঞ্জ বাজারে চায়ের দোকানে জহুরুল ইসলামের সঙ্গে অভিযুক্ত মিলন ও বারির পরিচয় হয়। এসময় তারা বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরবর্তীতে এক আত্মীয় পুকুর থেকে পাওয়া একটি স্বর্ণের মুদ্রা অল্প দামে বিক্রির প্রস্তাব দিয়ে জহুরুল ইসলামের কাছে থেকে তিন লাখ ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। স্বর্ণের মুদ্রাটি নকল জানার পর মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে মুদ্রাটি ফেরত দিয়ে জহুরুল ইসলাম তার দেয়া টাকা ফেরত চাইলে আসামিরা বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি দেখায়। এঘটনায় জহুরুল জয়পুরহাট র‌্যাব ক্যাম্পে অভিযোগ করেন। নিজস্ব গোয়েন্দা অনুসন্ধানে সত্যতা পেয়ে প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে আটক ও নকল মুদ্রাটি উদ্ধার করেছেব র‌্যাব।
প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত মিলন ও আব্দুল বারি স্বীকার করে যে, তারা একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের মূলহোতা ও সদস্য। দেশের বিভিন্ন এলাকার লোকজন কে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে সোনালী রংয়ের স্বর্ণের মুদ্রা বলে বিশ্বাস করিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতো। পরবর্তীতে আটককৃত প্রতারককারীদের বিরুদ্ধে জেলার আক্কেলপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ