বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী

আক্কেলপুরে সংবাদ প্রকাশের পর বেপরোয়া আলুবীজ ব্যবসায়ীরা!

আপডেট: October 23, 2016, 11:33 pm

আক্কেলপুর প্রতিনিধি
জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে গত বছরের লোকশানের বোঝা মাথায় নিয়ে এবার আগাম হিসেবে আড়াই হাজার হেক্টর জমিতে আলুচাষের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন চাষিরা। এ বিষয়ে একটি সংবাদ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হবার পর আলুবীজ ব্যবসায়ীরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছেন গণমাধ্যম কর্মীদের। তাদের অপরাধ আড়াল করতে নানা কৌশল গ্রহণ করছেন আলু বীজ ব্যবসায়ী ও তাদের দোসররা।
দেশের বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় শষ্য ভান্ডার বলে খ্যাত আক্কেলপুর উপজেলায় এবার আগাম জাতের প্রায় আড়াই হাজার হেক্টর জমিতে আলু চাষের প্রস্তুতি ও নি¤œমানের আলুবীজে বাজার সয়লাভ কৃষক প্রতারিত শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সংবাদ প্রকাশের পর এসব অনুমোদনহীন বীজ ব্যবসায়ীদের নিয়ে গত ১৭ অক্টোবর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা কৃষি বিভাগ ও বিআরডিপি-র পক্ষ থেকে বৈঠক হয়। বৈঠকে যে কোনো বীজ ব্যবসা সংক্রান্ত খবর প্রকাশ করায় গণমাধ্যম কর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি প্রদর্শন করেন দুইজন আলুবীজ ব্যবসায়ী। যা সম্পূর্ণ অন্যায়, অবমাননাকর, মানাহনিকর, ভীতি ও সাংঘর্ষিক। এ বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এতে আরো ক্ষিপÍ হন ওই দুই ব্যবসায়ী ও তার দোসরা।
প্রতিবাদের জড় ওঠে গণমাধ্যমসহ বিভিন্ন মহল থেকে। নিজেদের অপরাধ আড়াল করতে শুধুমাত্র একটি পত্রিকার খবরকে মিথ্যা ও অসত্য বলে বিজ্ঞাপন হিসেবে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দিয়ে নিজেদের অপকর্ম আড়াল করার চেষ্টা চালিয়েছেন।
এ বিষয়ে উপজেলার একাধিক গ্রামের আলুচাষি জয়নাল আবেদীন, শাহজালাল, আবু হোসেন, ছাওদেক আলী, বিপ্লব, আকরাম হোসেন , বেলাল হোসেন,  মোত্তালেব হোসেন, আজাহার আলী, আলমম নয়ন, নিশি চন্দ্র, বিমল চন্দ্র, আবদুল লতিফ, সেকেন্দার আলী, মাসুদ, সেন্টুমিয়া, আবু কালাম, দেলোয়ার হোসেন, রতন, সেকেন্দার হোসেন, নুর ইসলাম, শাওন মুক্তার হোসেন, নির্ম্মলসহ শতাধিক আলুচাষি দবি করে বলেন, উপজেলার আলুব্যবসায়ীরা মিথ্যা কথা বলে কৃষকদের ভুল বুঝিয়ে নি¤œমানের আলুবীজ বেশি দামে তাদের নিকট বিক্রি করে ভোক্তা অধিকারকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়েছেন। কৃষকদের লাভের পরিবর্তে লোকশানে ফেলছেন প্রতি বছর। উল্লেখিত বিষয়ের আলোকে সংশ্লিষ্টরা অতিস্বত্বর এসব অনুমোদনহীন আলুবীজ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন এ প্রত্যাশা সকলের।