আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ইদ

আপডেট: মে ১২, ২০২১, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক:


আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ইদ। তবে সৌদি আরবে মঙ্গলবার চাঁদ দেখা যায় নি- ফলে দেশটিতে ইদ উদযাপিত হবে আগামী বৃহস্পতিবার। সে অনুযায়ী বাংলাদেশে ইদ- উদযাপন হওয়ার কথা আগামী শুক্রবার। কিন্তু আজ জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় ইদের দিন নির্ধারিত হবে।
সারা দেশে মহামারি করোনাভাইরাস বহাল থাকায় গত বছরের মত এবারেও ইদের উৎসব-আমেজ থাকছে না। এই মুহূর্তে মানুষের জীবনই মুখ্য হয়ে উঠেছে, উৎসব নয়। কিন্তু শিশুদের প্রবোধ দিবে কে? ইদ-উৎসবে যতটুকুই সামিল হই না কেন স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি ভুলে গেলে চলবে না। জীবনের দাবিটা সর্বাগ্রে। জীবিত থাকলে ভবিষ্যতে অনেক উৎসবেই যোগ দেয়া যাবে। তাই এবারের ইদেও আনন্দ হবে শুধুই অনুভবে, গৃহের অভ্যন্তরে, সতর্ক ও সাবধানতায়।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, মঙ্গলবার (১১ মে) পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে মোট ১২ হাজার ৫ জনের।
এবং শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৭ লাখ ৭৬ হাজার ২৫৭ জন হয়েছে।
ইতোমধ্যেই খোলা মাঠে অর্থাৎ ইদগাহে ইদের জামাত এবারোও নিষিদ্ধ হয়েছে। নিকটবর্তী মসজিদে ইদের নামাজ আদায় করতে হবেÑ স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে। সেভাবেই প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ইদ উৎসব হলেও বৈশ্বিক করোনা ভাইরাসের অতিদ্রুত সংক্রমণে মানুষের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বৃদ্ধি রয়েছে। দেশের মানুষকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলতে হচ্ছে। তাই এবারের ইদও সারা পৃথিবীর মুসলমানদের জন্যই শুধুই নিয়ম রক্ষার।
এক মাস সিয়াম সাধনার পর ইদ উৎসব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও তাৎপর্যময়। এটি মুসলমানদের উৎসব হলেও এর তাৎপর্য সর্বস্তরের মানুষের মহামিলন। এই মিলন সম্প্রীতি ও শান্তির, ভ্রাতৃত্বের। সম্পীতি, শান্তি, ভ্রাতৃত্ব এবারের উৎসবহীন ইদে সবচেয়ে তাৎপর্যময় হয়ে উঠেছে। পৃথিবীর মানুষ সম্মিলিতভাবেই করেনাভাইরাসের প্রতিরোধে শামিল হয়ে আছে। করোনা প্রতিরোধ যুদ্ধে মানুষের জয়ী হবে- সেটাই হবে সারা পৃথিবীর জন্য এক অন্যরকম উৎসব।
রমজান মাস সংযমের। মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি ও কৃপা লাভের মধ্য দিয়ে বিগত জীবনের পাপরাশি থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার আশায় রোজা পালন করেছেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। কোরআন পাঠ করেছেন, দান খয়রাত করেছেন, মগ্ন থেকেছেন বেশি বেশি ইবাদত-বন্দেগিতে। মাসব্যাপি এই সিয়াম সাধনার পরিসমাপ্তি ঘটবে ইদে-আনন্দ অনুভবের মধ্য দিয়ে।