আজ বিশ্ব কিডনী দিবস

আপডেট: মার্চ ৯, ২০১৭, ১২:২০ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক


আজ বৃহস্পতিবার বিশ্ব কিডনী দিবস। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ রেনাল এসোসিয়েশন, কিডনী ফাউন্ডেশন ও ক্যাম্পস যৌথভাবে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর মধ্যে রয়েছে র‌্যালি ও আলোচনা সভা।
উল্লেখ্য, ২০০৬ সাল থেকে প্রতি বছর মার্চ মাসের দ্বিতীয় বৃহস্পতিবার বিশ্ব কিডনী দিবস পালিত হচ্ছে। ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি অব নেফ্রোলজি এবং ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব কিডনী ফাউন্ডেশনের যৌথ উদ্যোগে সারা বিশ্বে এই দিবসটি পালিত হয়ে আসছে।
বিশ্ব কিডনী দিবসে এবারের প্রতিপাদ্য হলো- ‘স্থ’ূূূলতা কিডনী রোগ বাড়ায়, সুষ্ঠু জীবনযাপনে সুস্থ কিডনী।’
বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ রেনাল এসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ।
সংবাদ সম্মেলনে কিডনী রোগের ভয়াবহতা থেকে মুক্ত থাকতে হলে অবশ্যই স্থ’ূূূলতা পরিহার করতে হবে জানিয়ে মুহাম্মদ রফিকুল আলম বলেন, মেদ ভূড়িকে না বলতে হবে। স্বাস্থ্যসম্মত জীবন যাপন করলেই স্থ’ূূূলতা দূর হবে। এজন্য আমাদের জনসচেতনতা বাড়াতে হবে। এসময় তিনি কিডনী রোগের জন্য দেয়া বরাদ্দ যথেষ্ট নয় উল্লেখ করে তা বাড়ানোর দাবিও জানান।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বর্তমান বিশ্বে অসংক্রামক ব্যাধিগুলোর মধ্যে কিডনী রোগ অন্যতম। বাংলাদেশে দিন দিন কিডনী রোগের প্রকোপ বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে প্রায় ২ কোটি লোক কোন না কোন কিডনী রোগে ভুগছে।
কিডনি রোগ মূলত দুই ধরনের উল্লেখ করে ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম জানান, এই দুটি হচ্ছে আকস্মিক কিডনী রোগ এবং ধীর গতির কিডনী রোগ। ধীর গতির কিডনী রোগের তিনটি প্রধান কারণ হচ্ছে ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও নেফ্রাইটিস। প্রতি বছর ৪০ হাজার রোগী নতুন করে ধীর গতির কিডনী রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। এসব রোগিদের কিডনী কয়েক বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ বিকল হয়ে যায় তখন ডায়ালিসিস বা কিডনী সংযোজন ব্যতিত বাঁচার উপায় থাকে না।
মানব দেহে অস্বাভাবিক বা অত্যধিক মেদ জমা হলে তাকে স্থ’ূূূলতা বলে উল্লেখ করে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সংজ্ঞা অনুযায়ি বডি মাস ইনডেক্স (বিএমআই) যদি ২৫ থেকে ২৯.৯ হয় তবে তাকে অত্যধিক ওজন, আর ৩০ এর অধিক হয় তাহলে স্থ’ূূূলতা বলে।- বাসস