আত্রাইয়ে চিকিৎসাসেবা নিয়ে বাঁচতে চায় শহিদুল

আপডেট: জুলাই ৯, ২০১৭, ১:০৪ পূর্বাহ্ণ

রাণীনগর প্রতিনিধি


কিডনিসহ জটিল রোগে আক্রান্ত শহিদুল-সোনার দেশ

শুধু অর্থের অভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত জীবন-মৃত্যুর মাঝে দাঁড়িয়ে প্রতিভাবান শিক্ষার্থী নওগাঁর আত্রাই উপজেলার জয়সাড়া গ্রামের মানসিক প্রতিবন্ধী মো. শহিদুল ইসলাম (২১)।
মেধাবী এই শিক্ষার্থী গত সাড়ে তিন বছর আগে মানসিক রোগে আক্রান্ত হয়। বর্তমানে কিডনিসহ আরো জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর দিকে ধাবিত হচ্ছে। নি¤্ন মধ্যবিত্ত পরিবারে বেড়ে ওঠা শহিদুল ইসলামের পরিবার দরিদ্র হওয়ায় ব্যয়বহুল চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হিমসিম খাচ্ছেন। শহিদুল ইসলাম উপজেলার জয়সাড়া গ্রামের ইসমাইল হোসেন ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত মেধাবী শিক্ষার্থী শহিদুল ইসলাম মাদ্রাসায় ৫ পারা কোরআন শরিফ হেফজ ও কিতাব বিভাগের জামাতে দহম পর্যন্ত পড়ালেখার পর গত প্রায় সাড়ে তিন বছর থেকে মানষিক রোগে আক্রান্ত হয়। বর্তমানে কিডনিসহ আরো জটিল রোগে সে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে বলে তার পরিবার জানিয়েছে। শহিদুলের অবস্থা দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে। এ জন্য যত দ্রুত সম্ভব তার উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা।
বর্তমানে সে পাবনা মানসিক হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আলতাফ হোসেনের তত্বাবধানে চিকিৎসা গ্রহণ করছে। তার চিকিৎসা ব্যয় অত্যন্ত বেশি হওয়ায় দরিদ্র পরিবারের পক্ষে তার চিকিৎসার অর্থ যোগান দেয়া অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে বিছানায় শুয়ে শুয়ে মৃত্যুর প্রহর গুণেই দিন কাটছে এই মেধাবী শিক্ষার্থীর।
বর্তমানে তার উন্নত চিকিৎসা করাতে পারলে তার আরোগ্য লাভের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। শহিদুল ইসলামকে সুস্থ করতে তাই সমাজের সব হৃদয়বান ও দানশীল ব্যক্তির সহযোগিতা কামানা করেছে তার পরিবার। সবার একটু সহযোগিতায় বাঁচতে পারে শহিদুল ইসলাম। শহিদুলকে সাহায্য পাঠানোর জন্য তার নিজস্ব বিকাশ নম্বর-০১৭৪৫-৮৮৩২২৯ এ সাহায্য পাঠানো যাবে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ