আপাতত হিজাব পরতে মানা কর্ণাটক হাইকোর্টের

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২২, ৯:৪৭ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক:


ভারতের কর্ণাটকের হিজাব ইস্যুটি অবশেষে উচ্চ আদালতে গড়ালো। বিষয়টি আদালতে নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত হিজাবসহ যেকোনও ধর্মীয় পোশাক আপাতত পরতে মানা করেছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার কর্ণাটকের উচ্চ আদালতের শুনানিতে বলা হয়েছে, এই ইস্যুটি নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা ধর্মীয় পোশাক পরতে পারবে না।

কর্ণাটক হাইকোর্টের তিন বিচারপতির বেঞ্চে হিজাব বিতর্কের শুনানি চলছে। বিচারপতিরা জানিয়েছেন, পরবর্তী শুনানি হবে সোমবার। তার আগে শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখতে কিছু পদক্ষেপের কথা জানিয়েছেন বিচারপতিরা।

যতদিন এই মামলা চলবে, ততদিন পর্যন্ত রাজ্যের স্কুল-কলেজে শুধু ইউনিফর্ম পরেই যেতে হবে। কোনও রকম ধর্মীয় পোশাক ব্যবহার না করাই ভালো। এই কয়েক দিন স্কুল-কলেজে যেতে হলে হিজাব পরা যাবে না। গেরুয়া চাদরও ব্যবহার করতে পারবে না শিক্ষার্থীরা।

গত মাসে ভারতের কর্ণাটকের একটি সরকারি স্কুলে শিক্ষার্থীদের হিজাব পরতে না করে দেওয়া হয়। এরপরই রাজ্যের অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতেও এমন নিষেধাজ্ঞা ছড়িয়ে পড়ে।

গত মঙ্গলবার হিজাব পরা এক শিক্ষার্থীকে হিন্দুত্ববাদের সমর্থকদের হাতে নাজেহাল হওয়ার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে ভারতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কর্ণাটকের কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছুটি ঘোষণা করা হয়। সূত্র: সিবিসি নিউজ, ডয়চে ভেলে।