আফগানভূম থেকে পাকিস্তানে জঙ্গি হামলা নয়, ইসলামাবাদকে কথা দিল ‘বন্ধু’ তালিবান

আপডেট: অক্টোবর ২৩, ২০২১, ৮:২২ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক:


শান্তির কথা তালিবানের মুখে! আফগান মাটিকে জঙ্গিদের আঁতুড়ঘর হিসেবে ব্যবহৃত হতে দেবে না জেহাদিরা। এমনটাই নাকি জানিয়েছে তারা। তবে অন্য কোনও দেশ নয়, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জঙ্গি হামলা প্রসঙ্গেই একথা জানিয়েছে তারা। পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে এমনই কথা দিয়েছে তালিবান।

বৃহস্পতিবারই সেদেশে গিয়েছিলেন শাহ মাহমুদ কুরেশি। জানা গিয়েছে, তিনি তালিবানের নেতা-মন্ত্রীদের পরামর্শ দিয়েছেন। আর সেই সাক্ষাৎ সেরে ফিরে এসে তালিবানের নয়া মনোভাবের কথা জানিয়েছেন তিনি। কুরেশি ও আইএসআই প্রধান লেফটেন্যান্ট ফইজ হামিদ কাবুলে গিয়ে দেখা করেন তালিবান নেতৃত্বের সঙ্গে। তাদের মধ্যে অন্যতম দেশের প্রধানমন্ত্রী মোল্লা মহম্মদ হাসান আখুন্দ।

পরে ইসলামাবাদে ফিরে সেই বৈঠক সম্পর্কে বলতে গিয়ে কুরেশি বলেন, দীর্ঘ আলোচনায় আখুন্দ তাঁদের কথা দিয়েছে ‘তহরিক-ই-পাকিস্তান’ কিংবা ‘বালোচিস্তান লিবারেশন আর্মি’র মতো জঙ্গি গোষ্ঠীকে পাকিস্তানে হামলা করার জন্য আফগান মাটি ব্য়বহার করতে দেবে না তালিবান। প্রসঙ্গত, এই দুই জঙ্গি গোষ্ঠী পাকিস্তানে নিষিদ্ধ। সাম্প্রতিক অতীতে তারা বারবার জঙ্গি হামলা চালিয়েছে পাকিস্তানে। বিশেষত চিনা-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডর সংলগ্ন এলাকায় কর্মরত চিনা নাগরিকদের লক্ষ্য করে চালানো হয়েছে হামলা। আফগানিস্তান তালিবানের দখলে যাওয়ার পর থেকেই আশঙ্কা তৈরি হয়েছে, অচিরেই বাকি বিশ্বে জঙ্গি হামলা চালাতে আফগান মাটিকে ব্যবহার করতে পারে বিভিন্ন জঙ্গি গোষ্ঠী। সেই প্রসঙ্গেই এবার ইসলামাবাদকে আশ্বস্ত করল তালিবান।

গত আগস্টে আফগানিস্তান দখল করেছে তালিবান। তারপর থেকে ক্রমেই কোণঠাসা হয়েছে জেহাদিরা। বিশ্বের বাকি দেশগুলি তালিবানকে স্বীকৃতি না দিলেও পাকিস্তান ‘বন্ধু’ হিসেবে পাশে থেকেছে। এমনকী সেদেশের সরকার গঠনেও ভূমিকা নিয়েছে। এবার তালিবান সরকারকে বিশ্বের দরবারে প্রতিষ্ঠা পাইয়ে দিতেও চেষ্টার কসুর করছে না ইসলামাবাদ। এবার তাই বন্ধুকৃত্য করতে তারাও প্রস্তুত, বুঝিয়ে দিল তালিবান।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ