আবারো নেপাল যাচ্ছেন রাজশাহীর ক্রীড়া সংগঠক ফরহাদ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭, ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ

.ক্রীড়া প্রতিবেদক


২০১৪ সালে বাংলাদেশ জাতীয় বাস্কেটবল দলের সঙ্গে গিয়েছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার যুগ্মসম্পাদক এবং বাংলাদেশ বাস্কেটবল ফেডারেশনে যুগ্মসম্পাদক খায়রুল আলম ফরহাদ। এবারো তিনি সাউথ এশিয়ান বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশন (সাবা) অনূর্ধ্ব-১৬ (বালক) বাস্কেটবল চ্যাম্পিয়নশিপের কর্মকর্তা হিসেবে রওনা হচ্ছেন। আজ সকালে ট্রেন যোগে ঢাকা যাবেন। এরপর তিনি বাস্কেটবল দলের অন্য কর্মকর্তাদের সাথে বিমানযোগে নেপালের উদ্দেশ্য রওনা হবে। এর আগে তিনি ভারত, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ডসহ বিভিন্ন দেশে জাতীয় বাস্কেটবল দলের ম্যানেজার ও কর্মকর্তা হিসেবে গেছেন। তার ক্রীড়া দক্ষতার কারণে ফেডারেশন এবারো নেপাল নিয়ে যাচ্ছে। তিনি দলের ও নিজের সাফল্য কামনা করে রাজশাহীবাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।
আজ মঙ্গলবার থেকে নেপালে শুরু হতে যাচ্ছে সাউথ এশিয়ান বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশন (সাবা) অনূর্ধ্ব-১৬ (বালক) বাস্কেটবল চ্যাম্পিয়নশিপ। ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় এই টুর্নামেন্টে অংশ নিতে গত রোববার নেপাল গিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ বাস্কেটবল দল। এই টুর্নামেন্ট চলবে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।
গতকাল সোমবার বিকেলে বাংলাদেশ দল নেপালে অনুশীলন করেছে। আজ মঙ্গলবার টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভুটানের। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ২ টা ৪০ মিনিটে। এই ম্যাচকে সামনে রেখে গতকাল বিকেলে অনুশীলন করেছে বাংলাদেশের যুবারা। দলের সবাই সুস্থ্য আছে। প্রস্তুতিও ভালো। ভুটানের বিপক্ষে ভালো ফল পেতে আশাবাদী দলের কোচ ও ম্যানেজার।
এই টুর্নামেন্টে বাংলাদেশ ছাড়াও অংশ নিয়েছে ভুটান, মালদ্বীপ, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক নেপাল। লিগ পদ্ধতিতে খেলা অনুষ্ঠিত হবে।
নেপালে যাওয়া ১৬ সদস্যের বাংলাদেশ দলে খেলোয়াড় ১০ জন। আর ম্যানেজার, কোচ, রেফারি ও কর্তকর্তা ৬ জন।
বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়রা : টুটুল কুমার বিশ্বাস, কাজী রাইতুল ইসলাম, তানভীর প্রধান, শরিফুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ রাব্বি, সজীব কুমার দাস, সৈয়দ সাবিদ হাসান, মুজাহিদ হক, আমির খান তাজিম ও মেহেদী হাসান রাব্বি। কর্মকর্তারা হলেন : ম্যানেজার-মোহাম্মদ আলী হোসেন, কর্মকর্তা-আসলাম উদ্দিন, মাইনুল আহসান মঞ্জু, খাইরুল আলম ফরহাদ, কোচ- মো. মাহবুবুর রহমান ও রেফারি- সবুজ মিয়া।