আমেরিকার আদালতে দোষী সাব্যস্ত তালিবানে যোগ দেওয়া বাংলাদেশি জঙ্গি

আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০২১, ৮:৫৩ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক :


আমেরিকার আদালতে দোষী সাব্যস্ত তালিবানে যোগ দেওয়া বাংলাদেশি জঙ্গি। ওই সন্ত্রাসবাদীর নাম মহম্মদ দেলোয়ার হোসেন (৩৬)। আফগানিস্তানের জেহাদিদের আর্থিক মদত দিচ্ছিল ওই জঙ্গি।

জানা গিয়েছে, দেলোয়ার হুসেনকে তালিবানে যোগ দিয়ে আমেরিকানদের হত্যার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার মামলায় নিউ ইয়র্কের ফেডারেল কোর্ট দোষী সাব্যস্ত করেছে। ম্যানহাটানের ইউএস ফেডারেল কোর্টের জজ সিডনি এইচ স্টাইনের আদালতে সপ্তাহব্যাপী শুনানি শেষে গত শুক্রবার তাকে জুরি বোর্ড দোষী সাব্যস্ত করে। মার্কিন অ্যাটর্নি অফিস সূত্রে খবর, পেশায় ট্যাক্সি চালক ছিল হোসেন। নিউ ইয়র্কের ব্রঙ্কসে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে থাকতো সে। আফগানিস্তান ফগইয়ে তালিবানে যোগ দেওয়ার জন্য ২০১৯ সালের ২৬ জুলাই জেএফকে এয়ারপোর্টে ঢুকেছিল সে। সেই সময়ই এফবিআই-সহ বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা তাকে গ্রেপ্তার করে। তারপর বছরখানেক তাকে নিজ গৃহে বন্দি অবস্থায় থাকতে হয়েছিল।

আগামী ১২ জানুয়ারি বাংলাদেশি নাগরিক দেলোয়ারের সাজা ঘোষণা করবে আদালত। তালিবানে যোগ দিয়ে আমেরিকানদের হত্যার মতলব ছিল ওই জঙ্গির। তবে ছদ্মবেশী এফবিআই এজেন্টের ফাঁদে প দেয় সে। ২০১৮ সালে এক ছদ্মবেশি এফবিআইয়ের সদস্যকেও দেলোয়ার তার মতোই একজন জঙ্গি ভেবে পরিকল্পনা ফাঁস করে দেয়। সে সময় দেলোয়ার বলে, “আমি কিছু বিধর্মীকে হত্যা করতে চাই। মৃত্যুর আগে কিছু আমেরিকানকে হত্যা করতে পারলে আমার আত্মা শান্তি পাবে।”

তদন্তকারীদের মতে, দেলোয়ার জেএফকে এয়ারপোর্ট থেকে মধ্যপ্রাচ্য হয়ে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে অবতরণের পর বাংলাদেশে নিকটাত্মীয়দের সঙ্গে মিলিত হয়ে ভারত-পাকিস্তান থেকে আফগানের দুর্গম পর্বতে যেতে চেয়েছিল। সেখানে গিয়ে তালেবানের ক্যাম্পে সশস্ত্র ট্রেনিং শেষে মার্কিন বাহিনীর বিরুদ্ধে এবং আমেরিকানদের হত্যার অভিযানে নামতে চেয়েছিল সে। কিন্তু তার সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায়।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন