আমেরিকার মসনদে মস্কোর পছন্দের লোক

আপডেট: নভেম্বর ৯, ২০১৬, ১১:৫০ অপরাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক
‘মেক আমেরিকা গ্রেট এগেন’-এই ভরসা রাখল মার্কিন নাগরিক। ৪৫তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁরই হাত ধরে আট বছর পরে ক্ষমতায় ফিরল রিপাবলিকান পার্টি। হয়তো হাসি ফুটল রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মুখেও! তিনি তো ট্রাম্পকে, হিলারের চেয়ে ‘যোগ্যতর প্রেসিডেন্ট’ বলে মনে করার কথা প্রকাশ্যেই জানিয়েছিলেন। শুরু হল আমেরিকার এক অনিশ্চিত পথ চলা।
বরাবরই বেপরোয়া ট্রাম্প। নির্মাণ শিল্পে গগনচুম্বী সাফল্য নিয়ে রাজনীতির প্রাঙ্গণে এসেছেন। সেখানেও মুখ বন্ধ রাখা, সৌজন্য বজায় রাখার ধার ধারেননি। রিপাবলিকান পার্টির হয়ে প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে, প্রাইমারি থেকেই ট্রাম্পের মুখ খোলার নানা নমুনা পেয়েছে আমেরিকা। পোড়খাওয়া রিপাবলিকান নেতাদের মার্জিত যুক্তিকে মুখের তোড়ে উড়িয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প। ট্রাম্পের এই অরাজনৈতিক আচরণই জনতার মন জিতেছে। প্রাইমারি লড়াইয়ে প্রথম থেকেই বাকি প্রার্থীদের পিছনে ফেলতে শুরু করেন ট্রাম্প। আজ পিছনে ফেলে দিলেন আর এক পোড়খাওয়া রাজনীতিক হিলারিকেও।
নির্বাচনী প্রচারের শেষ দিন ট্রাম্প বার বার বলেছিলেন, তিনি রাজনৈতিক নেতা নন। তাঁর মতো ব্যক্তির হাতে ক্ষমতা তুলে দেয়ার সুযোগ বার বার আসবে না। দিলে আসবে পরিবর্তন। সেই সুযোগটাই নিলেন মার্কিন জনতা। বুঝিয়ে দিল, প্রথাগত রাজনীতির চেয়ে ছক-ভাঙা ট্রাম্পই তাঁদের বেশি পচ্ছন্দের।আাানন্দবাজার পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ