আমেরিকায় ফের বন্দুকবাজের হামলা, চার্চ-স্কুল-মিউজিক কনসার্টের পর এবার ট্রেনে শুটআউট

আপডেট: জুন ২৩, ২০২২, ১:১৪ অপরাহ্ণ


সোনার দেশ ডেস্ক :


ফের শুটআউট আমেরিকায়। স্কুল, চার্চ, জন্মদিনের পার্টির পর এবার ট্রেনে চলল গুলি। একজনের মৃত্যু হয়েছে। জখম আরও একজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ফেরার বন্দুকবাজ। সম্প্রতি আমেরিকাজুড়ে একের পর এক শুটআউটের ঘটনা ঘটছে। বন্দুকবাজের গুলিতে প্রাণ হারাচ্ছে সাধারণ মানুষ।

আমেরিকার স্থানীয় সময় অনুযায়ী বুধবার সকাল সান ফ্রান্সিসকোর মিউনি ট্রেনে হামলা চালায় বন্দুকবাজ। সকালে ট্রেনটি ছেড়েছিল মিউনি ফরেস্ট হিল স্টেশন থেকে। গন্তব্য ছিল কাস্ট্রো। গন্তব্যে পৌঁছনোর পর পুলিশ গুলিবিদ্ধ দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। দেখা যায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

অপরজন গুরুতর চোট পেলেও প্রাণহানির আশঙ্কা নেই। কাস্ট্রো স্টেশনে নেমে গাঢাকা দিয়েছে হামলাকারী। তার নাম, পরিচয় এখনও অজানা বলছে সান ফ্রান্সিসকোর পুলিশ।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, নিহত ব্যক্তি এবং বন্দুকবাজ একে অপরের পূর্ব পরিচিত। দুজনের মধ্যে আগে থেকেই সমস্যা চলছিল। সেই সূত্র ধরেই ট্রেনে উঠে গুলি চালায় অভিযুক্ত। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। হামলার নিন্দা করে দেশের আগ্নেয়াস্ত্র আইনের পরিবর্তন আনার দাবি জানিয়েছেন সান ফ্রান্সিসকোর সেনেটর স্কট উয়েনার। তিনি জানিয়েছেন, “দেশে যতদিন সহজেই আগ্নেয়াস্ত্র মিলবে, ততদিন এধরনের ঘটনা ঘটবে।” সান ফ্রান্সিসকোর ঘটনা তার প্রমাণ।

তিনি আরও জানান, “ক্যালিফোর্নিয়ায় আগ্নেয়াস্ত্র আইন সবচেয়ে কঠোর। আমরাও কঠোর আইন কার্যকর করার চেষ্টা করছি। তবে এ বিষয়ে মার্কিন কংগ্রসকেই উপযুক্ত পদক্ষেপ করতে হবে।”

এনিয়ে স¤প্রতি বেশ কয়েকবার গুলিচালনা ও প্রাণহানির ঘটনার সাক্ষী রইল আমেরিকা। কখনও চার্চে ঢুকে, কখনও স্কুলে, কখনও আবার শপিং মল অথবা ভিড়ের মাঝে বন্দুক হাতে দাপট চলছেই। সেখানকার বন্দুক আইন সংশোধন নিয়ে যতই আলোচনা হোক, সুফল মিলছে না কিছুতেই।
তথ্যসূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ