আরএমপির সাইবার ক্রাইম ইউনিটের যাত্রা শুরু অপরাধ দমনে একমাসের মধ্যে দৃশ্যমান অগ্রগতি : পুলিশ কমিশনার

আপডেট: September 17, 2020, 9:44 pm

নিজস্ব প্রতিবেদক:


সাইবার ক্রাইম ইউনিটের যাত্রা শুরুঅনুষ্ঠানে পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিকসহ অন্যরা – সোনার দেশ

ডিজিটাল মাধ্যমে সংঘটিত অপরাধ দমনে অপরাধীদের শনাক্ত করতে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) সাইবার ক্রাইম ইউনিটের যাত্রা শুরু হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আরএমপির সদর দপ্তরে সাইবার ক্রাইম ইউনিটের উদ্বোধন করেন পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক।
উদ্বোন-উত্তর এক প্রেস ব্রিফিঙে পুলিশ কমিশনার বলেন, রাজশাহী মহানগরে যাতে কোনো ধরনের সাইবার ক্রাইম সংঘটিত হতে না পারে সেজন্য কাজ করবে এ ইউনিট। বিশেষ করে ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সংঘটিত অপরাধ নিয়ে কাজ করবে এই সাইবার ক্রাইম ইউনিট। এই ইউনিটে প্রশিক্ষিত দক্ষ ও সক্ষম কর্মিরা কাজ করবেন।
আবু কালাম সিদ্দিক উপস্থিত সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেন যে, অপরাধ দমনে একমাসের মধ্যে দৃশ্যমান অগ্রগতি দেখতে পারবেন। তিনি বলেন, রাজশাহী শিক্ষানগরী হিসেবে খ্যাত। আমরা অপরাধ দমনে রাজশাহীকে একটি প্রযুক্তি-নির্ভর শহর হিসেবেও গড়ে তুলতে চাই।
পুলিশ কমিশনার বলেন, রাজশাহীতে স্বতন্ত্র সাইবার ক্রাইম ইউনিট ছিল না। আমি যোগদানের পর সাংবাদিকদের দেওয়া প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন এ সাইবার ক্রাইম ইউনিট গঠন। এ ইউনিটের তত্ত্বাবধানে দক্ষ ও চৌকস পুলিশ অফিসারকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। যিনি ঢাকা থেকে সাইবার ক্রাইম বিষয়ে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। এছাড়া সাইবার ক্রাইম ইউনিটে সবধরনের লজিস্টিক সাপোর্টও রয়েছে। ফলে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীকে খুঁজতে ও ধরতে কাজ করবে এ ইউনিট। থানায় মামলা হলেও শনাক্তকরণে কাজ করবে সাইবার ক্রাইম ইউনিট।
এসময় পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সাইবার ক্রাইম ইউনিটের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে আরএমপির সহকারী পুলিশ কমিশনার উৎপল কুমার চৌধুরীকে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ