আ’লীগ নেতাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান সাংসদ এনামুলের

আপডেট: জানুয়ারি ১৮, ২০১৭, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

বাগমারা প্রতিনিধি



আর কোনো কোন্দল বা বিভেদ নয়, দলের জন্য সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন নেতা-কর্মীরা। বাগমারার সাংসদ এনামুল হক নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সভায় সাংসদ এনামুল বলেন, অতীতের কিছু তিক্ততা থাকলেও তা আজ থেকে ভুলে গিয়ে দলের জন্য কাজ করতে হবে।
এছাড়া দলের নেতাকর্মীরা এলাকার উন্নয়ন ও সংগঠনকে আরও শক্তিশালী করতে সাংসদকে সহযোগিতারও ঘোষণা দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বাগমারার বঙ্গবন্ধু জাদুঘর কমপ্লেক্সে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরি কমিটির সভায় সাংসদের উপস্থিতিতে নেতাকর্মীরা একসঙ্গে থেকে কাজ করার জন্য অঙ্গীকার করেন।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জাকিরুল ইসলাম সান্টুর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মতিউর রহমান টুকু, স্বেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সহসভাপতি ড. পিএম সফিকুল ইসলাম, জেলার সাবেক যুগ্ম সম্পাদক পিপি ইব্রাহিম হোসেন, তাহেরপুর পৌরসভার আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু বাক্কার মৃধা মুনসুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মেয়র আবুল কালাম আজাদ, গণিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামসুল ইসলাম।
সভার সভাপতি সাংসদ এনামুল হক বলেছেন, আগামী নির্বাচন হবে শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করার নির্বাচন। তাই নির্বাচনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই নির্বাচনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, গত ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের পর এই আসনে আওয়ামী লীগের ভোট বেড়েছে। বিগত  পৌরসভা, ইউপি ও জেলা পরিষদ নির্বাচনেও দলের সাফল্য এসেছে। উল্লেখযোগ্যসংখ্যক প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ থেকে। এছাড়াও ভোটের পরিমাণও বেশি। এই অনুপ্রেরণা নিয়ে আগামী নির্বাচনে কাজ করতে হবে।
সাংসদ আরও বলেছেন, এখন থেকে দলের ভেতরে আর কোনো ভেদাভেদ থাকবে না। সামান্য যে ভুল  বোঝাবুঝি ছিল তা দূর হয়ে গেছে। ভবিষ্যতে যেন আর কোনো ভেদাভেদ না থাকে সেদিকে নজর রাখার জন্য দলের নেতাকর্মীদের আহ্বান জানান। নেতা-কর্মীরাও সাংসদের বক্তব্যকে সমর্থন করে একসঙ্গে কাজ করার জন্য অঙ্গীকার করেন।
তাহেরপুর পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদও তার বক্তব্যে সব ভেদাভেদ ভুলে দলের জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার ঘোষণা দেন। তিনি এলাকার ও দলের উন্নয়নের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হককে সব ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অনিল কুমার সরকার, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক প্রতীক দাস রানা, সাবেক সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মালেক মেহমুদ, উপজেলার সহসভাপতি ইয়াছিন আলী মাস্টার, আহসান হাবিব, রিয়াজ উদ্দিন মাস্টার, আফতাব উদ্দিন আবুল, মকবুল হোসেন মৃধা, যুগ্মসম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারোয়ার আবুল, সিরাজ উদ্দিন সুরুজ, মাহাবুবুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক জিয়াউদ্দিন টিপু, কোষাধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলম হেলাল, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও পৌর আ’লীগের সভাপতি আব্দুল মালেক ম-ল, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মাহফুজা পারভীন সীমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা আক্তারুজ্জামান বুলবুল,আব্দুল হামিদ ফৌজদার, আসলাম আলী আসকান, সরদার জান মোহাম্মদ, মোস্তফা কামাল, আজাহারুল হক, আয়েন উদ্দিন, এসএম মামুনুর রশিদ, লুৎফর রহমান, হারুন অর রশিদ, ফরিদা ইয়াসমিন, সাইদুর রহমান, আয়ূব আলী, মরিয়ম বেগম, আবুল কালাম আজাদ, ফরহাদ হোসেন মজনু, আব্দুল জব্বার, নাসির উদ্দিন, আব্দুর রাজ্জাক, রনজিত কুমার, শামসুল হক, অ্যাডঃ সাঈদ আলী, মোল্লাহ এম আলতাফ হোসেন, হারুণ অর রশিদ, রেজাউল হক, আব্দুস সালাম,আবুল কালাম আজাদ,শামসুর রহমান শেখ, রফিকুল ইসলাম, জাফর ইকবাল, মাহাবুর রহমান, ইয়াছিন আলী, বীরেন্দ্রনাথ প্রমুখ। রাতে সাংসদ এনামুল হক তাহেরপুরে কেন্দ্রিয় জামে মসজিদের বার্ষিক ইসলামী জালসায় প্রধান অতিথি হিসাবে যোগ দেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ