আলেপ্পোয় যুদ্ধবিরতির কয়েকঘণ্টা পরই লড়াই শুরু

আপডেট: ডিসেম্বর ১৫, ২০১৬, ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

সোনার দেশ ডেস্ক



সিরিয়ার পূর্ব আলেপ্পোয় যুদ্ধবিরতি ঘোষণার মধ্য দিয়ে যুদ্ধের সমাপ্তি টানার কয়েকঘণ্টা পরই ফের লড়াই শুরু হয়েছে।
প্রচ- বিমান ও গোলা হামলার মুখে বন্ধ হয়ে গেছে বিদ্রোহী যোদ্ধা ও আটকা পড়া মানুষদের আলেপ্পো ছাড়ার প্রস্তুতি।
মঙ্গলবার আলেপ্পোয় যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়। মানুষজনকে আলেপ্পো থেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য বাসও আনা হয়। কিন্তু বুধবার সকালে মানুষজনের আলেপ্পো ছাড়ার প্রস্তুতির মাঝেই ফের লড়াই শুরু হয়েছে। এতে করে যুদ্ধবিরতি ভেস্তে গেছে বলেই মনে করছে যুদ্ধ পর্যবেক্ষণকারী সংস্থা দ্য অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস।
বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোতে বিমান হামলা শুরু হয়েছে। ওদিকে, সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টিভি জানিয়েছে, সরকারি বাহিনীর দখল করা বুস্তান আল কসর এলাকাতে বিদ্রোহীরা গোলা হামলা চালাচ্ছে। এতে ৬ জন নিহত হয়েছে।
রাশিয়া বলেছে, সরকারি বাহিনী বিদ্রোহীদের হামলার জবাব দিচ্ছে। রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, বিদ্রোহীদের প্রতিরোধ আগামী দু’তিন দিনেই গুঁড়িয়ে দেয়া হবে।
রাশিয়া ও তুরস্কের উদ্যোগে একটি চুক্তির আওতায় মঙ্গলবার আলেপ্পোয় যুদ্ধবিরতি হয়। জাতিসংঘে নিযুক্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত ভিটালি চুরকিন এ চুক্তির কথা জানিয়ে কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই যুদ্ধবিরতি কার্যকরের ঘোষণা দেন। এরপর গত কয়েক ঘণ্টায় শহরটিতে কোনও বোমা হামলা বা গোলাগুলির শব্দ শোনা যায়নি।
চুক্তিটির আওতায় পূর্ব আলেপ্পো থেকে বিদ্রোহীরাসহ সাধারণ মানুষদের নিরাপদে শহর ত্যাগ করতে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি রয়েছে। বুধবার স্থানীয় সময় ভোর ৫ টা থেকেই আলেপ্পো ছাড়ার কাজ শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু যুদ্ধবিরতির কয়েকঘন্টা পরই আবার গোলাগুলি শুরু হওয়ায় তা আর এগুতে পারেনি।
দ্য অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস এর পরিচালক রমি আব্দুল রহমান বলেছেন, “সহিংস লড়াই চলছে। ভারী বোমাবর্ষণও চলছে… মনে হচ্ছে সব (যুদ্ধবিরতি) শেষ হয়ে গেছে।”- বিডিনিউজ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ