আস্ত লেজ নিয়ে জন্মাল শিশু! এও কি সম্ভব? চমকে উঠলেন চিকিৎসকরাই

আপডেট: নভেম্বর ২৬, ২০২২, ৮:০১ অপরাহ্ণ

শেষ পর্যন্ত কেটে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে লেজটি। ছবি: সংগৃহীত

সোনার দেশ ডেস্ক:


আর পাঁচটি সদ্যোজাত শিশুর সঙ্গে খুব একটা তফাত নেই। তফাত শুধু একটি জায়গাতেই। জন্ম থেকেই শিশুকন্যার নিতম্বের ঠিক উপরে রয়েছে আস্ত একটি লেজ! এমনই বিরল ঘটনার সাক্ষী রইলেন মেক্সিকোর একদল চিকিৎসক। ‘জার্নাল অফ পেডিয়াট্রিক সার্জারি’-তে প্রকাশিত একটি গবেষণাপত্রে জানা গিয়েছে এমনই একটি ঘটনার কথা।

উত্তর মেক্সিকোর একটি গ্রামীণ হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জন্ম হয় ওই শিশুকন্যার। শিশু ও তার বাবা-মায়ের নাম প্রকাশ করা হয়নি ওই গবেষণাপত্রে। দেখা যায়, নিতম্বের উপরে একগাছা লোম, আর সেখানেই প্রায় দুই ইঞ্চি লম্বা একটি লেজ। বিষয়টি কী তা বুঝতে এক্সরে করেন চিকিৎসকেরা। দেখা যায় লেজটির ভিতরে কোনও হাড় নেই। অনেক সময়ে কোমরের নীচের হাড় বেড়ে গিয়ে এক ধরনের উপবৃদ্ধি হয়। তাকে ভেস্টিজিয়াল লেজ বলা হয়। এই ধরনের লেজকে বিবর্তনের অংশ হিসাবেই দেখেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু এ ক্ষেত্রে লেজটি সে রকম নয়। শুধু পেশিকলা দিয়েই তৈরি লেজটি। চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে দেখেন যে, লেজটিতে সংবেদন রয়েছে। বিজ্ঞানের ভাষায় এটি ‘ট্রু টেল’।

বিষয়টি এতই বিরল যে এখনও পর্যন্ত ৪০টি এই ধরনের ঘটনার সন্ধান মেলে চিকিৎসাশাস্ত্রে। চিকিৎসকরা জানান, লেজ থাকলেও দেহের আর কোনও স্থানে কোনও রকম উপবৃদ্ধি নেই শিশুটির। সম্পূর্ণ সুস্থ সে। পাশাপাশি, দেহের অন্য কোনও স্থানেও অস্বাভাবিক কিছু দেখতে পাননি চিকিৎসকরা। শেষ পর্যন্ত দু’মাস পরে চিকিৎসকেরা সিদ্ধান্ত নেন অস্ত্রোপচার করার। শেষ পর্যন্ত কেটে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে লেজটি।
তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ